Google এর পথে হাঁটছে Facebook, এবার চালু হচ্ছে ওয়ার্ক ফ্রম হোম ফেসিলিটি

0
work from home facility start from facebook
বারিএ বসে কাজের সুযোগ পাবে কর্মীরা

হাজার সংবাদ ডেস্ক: করোনা সঙ্কটে মার্চ মাস থেকে বন্ধ হয়েছে সমস্ত অফিস-আদালত। এবার সমস্ত কোম্পানির নির্দেশ অনুযায়ী ওয়ার্ক ফ্রম হোম ফেসিলিটি চালু হয়েছিল। তিন মাস থেকে চার মাস অর্থাৎ এখনো পর্যন্ত সমস্ত কোম্পানির এই নিয়ম মেনে চলছে সমস্ত কাজকর্ম । বন্ধ হয়নি কোন কাজকর্ম বাড়ি থেকে কর্মীরা কাজ করতে পারছিল নিজেদের দায়িত্ববোধে। তবে এবার সরকারি নির্দেশে বেশকিছু অফিস অনলাইন মাধ্যমে বাড়ি বসে work-from-home কাজের নির্দেশে মেয়াদ বাড়িয়ে দিল।

তবে কবে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে তা কেউ জানে না। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য যে নিয়ম-কানুন চালু করা হয়েছিল তার ওপর ভিত্তি করেই নির্দেশে চলছিল work-from-home এর। তবে তা কতদিন চলবে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল সবাইয়ের মনে। তবে বেশ কিছু কোম্পানি কয়েকদিন আগে জানিয়ে দিয়েছে যে তারা ওয়াক ফ্রম নির্দেশে চলবে একবছর। যতদিন না করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে ততদিন পর্যন্ত চলবে এই নিয়ম।

গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই নির্দেশ দিয়েছে আগামী জুন মাস পর্যন্ত অর্থাৎ 2021 সালের জুন মাসের 30 তারিখ পর্যন্ত সমস্ত কর্মীরা কাজ করবে বাড়িতে বসেই। তারমধ্যে গুগোল কর্মীদের মধ্যে কলকাতায় রয়েছে 50 হাজার কর্মী তাদেরকেও সেই একই নির্দেশে চলতে হবে। তাতে আগামী দিনের করতে পারে সবায় সে জন্য। আর এবার সেই একই পথে হাঁটছে ফেসবুকের মত। এইরকম একটি বড় ডিজিটাল কোম্পানির কর্মীরা বাড়িতে আরো এক বছর কাজের সুযোগ পাবে বলে জানিয়েছে ফেসবুক। যেমন ভাবে বাড়ীতে বসে কাজকর্ম চলছে ঠিক সেভাবেই কাজের নির্দেশে চলবে আরও এক বছর। তাতে কর্মীদের বাড়িতে ইনফ্রাস্ট্রাকচার তৈরি করার জন্য সমস্ত দায়িত্ব নেবে ফেসবুক কোম্পানি।

Also Visit: FlixDigit – The Best Digital Marketing Company in Kolkata

টা তৈরি করতে জা টাকা পয়সা ফেসবুক নিজে সেই টাকা কর্মী দের দেবে। যে প্রত্যেক কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার জন্য ইনফ্রাস্ট্রাকচার তৈরি করার জন্য 1000 ডলার দেওয়া হবে বাড়িতে সেই অফিস পরিস্থিতি তৈরি করার জন্য। ভারতীয় মুদ্রায় যার পরিমান ৭৫০০০০ টাকার মতো। এই টাকা দিয়ে তারা তাদের বাড়িতে সমস্ত অফিশিয়াল ব্যবস্থা করতে পারবে। তবে ওয়াক ফ্রম হোম নির্দেশে চললে সমস্ত মানুষদের অনেক সুবিধা হবে অনেক কর্মীদের। সুবিধা বাড়বে কারণ এই পরিস্থিতিতে গাড়ি-ঘোড়া পাওয়া যায় না তাই বাইরে বের হওয়া যথেষ্ট চাপের মুখে পিরবে সব কর্মীরা।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন