রাম মন্দিরের পুরোহিতের করোনা পজিটিভ! কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন কি প্রধান মন্ত্রী

0
Will Narendra Modi stay isolation in time because the of Ayodhya Ram temple priest has been corona positive?
রাম মন্দির

হাজার সংবাদ ডেস্ক : অন্য বারের মত এবারও কি এড়িয়ে যাবে প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নিয়ম কি শুধু জনসাধারণ এবং আম আদমির জন্য নাকি এই নিয়ম ওপর মহলের সবার জন্য তা নিয়ে জল্পনা চলছে। তবে সব তা জানতে হলে এক সপ্তাহ পিছিয়ে যেতে হবে। অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের স্থাপন করতে গেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তথা রাজ্যের মাননীয় কিছু মানুষ। তাদের মধ্যে নরেন্দ্র মোদি খালি হাতে মাস্ক ছাড়া রাম মন্দিরের পুরোহিত নিত্য গোপাল দাস এর সাথে বিনিময় করেছে কি পুজার দ্রব্য। আর এখন রাম মন্দিরের পুরোহিত নিত্য গোপাল দাস তিনি এখন করোনা পজেটিভ। যদিও পুরোহিতের পজিটিভ রিপোর্ট আসার আগে রাম মন্দির এর আরো বেশ কয়েকজন রক্ষীর করোনা পজেটিভ হয়েছিল তার পরেও রাম মন্দির নির্মাণের কাজ থেমে থাকেনি। বিধি-নিষেধ সমস্ত কিছু মেনেই নাকি হয়েছে রাম মন্দির নির্মাণ তাহলে তিনি কেন অসুস্থ হয়ে পড়লেন। যদিও তিনি সেখানকার বাসিন্দা তাই খুব সহজ ছিল এটা তবে তার সাথে এক সপ্তাহ আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার হাতে হাত রেখে পূজা সামগ্রী বিনিময় করেছিলেন সেই পুরোহিত।

এবারেও কি তিনি আইসোলেশন এর যাবেন না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। কেন তিনি আসলে এখানে যাচ্ছেন না অন্যান্য ক্ষেত্রে যে নিয়ম কাটছে সেটা তার ক্ষেত্রে কেন নয়। রাম মন্দির নির্মাণের 5 দিন আগে অমিত শাহ নিজের টুইট করে জানিয়েছিলেন তিনি করোনা পজিটিভ হয়েছে এবং তিনি একটি হাসপাতালে ভর্তিও আছেন। তখন অমিত শাহ সবাইকেই জানিয়েছিলেন তার সাথে যারা যারা ছিলেন এবং বেশ কয়েকদিনের সংস্পর্শে আসা যে সমস্ত মানুষ ছিলেন তারা যেন আইসোলেশনে থাকে, সেই রীতি অনুযায়ী আইসোলেশনে ছিলেন বাবুল সুপ্রিয় তথা বেশকিছু বিজেপি সংসদ। করোনা পজিটিভ জানিয়েছিলেন যেইদিন অমিত শাহ আর দুদিন আগে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাংসদ বৈঠক ছিলেন দুজনেই। তারপরেও প্রধানমন্ত্রী আইসোলেশনে যাননি বরং তার তিন থেকে চারদিন পর তিনি রাম মন্দির নির্মাণের কাজে গিয়েছিলেন অযোধ্যাতে।

আর এবার রাম মন্দিরের পুরোহিতের করোণা পজিটিভ এবং সেই রাম মন্দিরের পুরোহিত রাম মন্দির নির্মাণের দিন সাথে ছিল দেশের আরও 4 থেকে 5 জন মাননি মানুষ ছাড়াও বেশ কয়েকজন এবং নরেন্দ্র মোদি। নরেন্দ্র মোদির সাথে কথোপকথন করেছেন এবং বেশ কিছু সামগ্রী আদান প্রদান করেছেন সেই পুরোহিত। তাহলে যে পুরোহিত এক সপ্তাহ আগে মন্দিরে ছিলেন তিনি এখন করোনা পজেটিভ এবং তার সংস্পর্শে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী তাহলে কি প্রধানমন্ত্রীর আইসলেসন থাকা উচিত নয়? এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিভিন্ন রাজ্য থেকে। অমিত শাহের করোণা পজিটিভ জানতে পারার পর যেভাবে সব এরিয়ে গেছিল এবারেও কি তাই হবে নাকি তিনি কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। যদিও তিনি নিজে মুখে এখনো কিছু জানায়নি তবে সত্যিটা কি তা খুব তাড়াতাড়ি প্রকাশ পাবে। তিনি করোনা পরীক্ষা করানোর জন্য এগিয়েছেন কিনা তা জানা যায়নি। যে নিয়ম সমাজ এবং জনসাধারণের জন্য সমান সেই নিয়ম রাজনীতির খেলায় কেন আলাদা তা নিয়ে বারবার প্রশ্ন তুলছে তৃণমূল।

যেখানে ভগবান এবং রাজনীতি এইসব কিছু রয়েছে সেখানে বোধহয় শুধুমাত্র নিয়মকানুন রয়েছে সাধারণ মানুষের জন্য তা কখনোই ওপর পদের মানুষের জন্য নয়। তারা নিয়ম খাটাতে পারে কিন্তু সেই নিয়ম মানতে রাজি নয় তারা। করোনা ভাইরাস এর দূরত্ব থেকে শুরু করে যা কিছু নিয়ম রয়েছে তা কি তাহলে সাধারণ মানুষ মানবে আর ওপর পদের সবাই থাকবে এই নিয়মের ঊর্ধ্বে তা কখনই নয়। কারণ করোনা কাউকে ছাড়তে পারে না করোনা এমন একটি রোগ যা কোনদিন কাউকে ছাড়বে না সেই রোগের জন্য নিজেদেরকে সচেতন থাকতে হবে। তবে প্রধান মন্ত্রীর টেস্ট করার চিন্তা এখনো সামনে আসেনি খুব শীঘ্রই তা সামনে আসবে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন