এলো মেলো শীতে জব্দ মানুষ! আবার নামতে পারে পারদ বছরের প্রথম মাসের শেষ দিনে

0
west bengal winter season increasing
বারতে পারে শীত

হাজার সংবাদ ডেস্ক: বছরের শুরুতেই শীতের আমেজ থাকলেও বছরের প্রথম মাসে সেভাবে কমেনি শীত। প্রত্যেকটা মুহূর্তে আবহাওয়া এদিক-ওদিক হয়েছে আর তাতে বহু মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছে সাধারণ মানুষ আর তার সাথে সাথে আবহাওয়ার এই ওঠানামা সাথে শীত বারা কমা এবং বায়ুর গতিবেগ এর পরিবর্তন তা মানুষের শরীরে প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে অনেকের জ্বর-সর্দি-কাশিতে ভুগছে এই আবহাওয়ার জন্য।

সূত্রের খবর অনুযায়ী আবহাওয়া দপ্তরের আবহাওয়া অফিসের খবর জানিয়েছে। তারা জানিয়েছে এ বছরের প্রথম মাসের শেষ দিনে জাঁকিয়ে শীত পড়তে পারে অর্থাৎ নতুন বছরের প্রথম মাসের শেষে অর্থাৎ 30 তারিখে প্রচুর পরিমাণে ঠান্ডা পড়বে এবং তার সাথে বায়ুর গতিবেগ পরিবর্তন হওয়ায় বৃষ্টি না থাকলেও কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়া থাকবে এবং প্রবণতা রয়েছে। এ বছর এলোপাতাড়ি ঠান্ডা কমাতে বাড়াতে অনেক বেশি সমস্যায় পড়ছে সাধারণ মানুষ। কোথাও কোথাও বেশি থাকলেও অনেক বেশি কুয়াশার জন্য যানবাহন দেরিতে চলছে তার সাথে সাথে মানুষের অসুবিধা বাড়ছে। এবং অবস্থা চরমে এই মাসে এরকম শীত। শীত থাকবে তবে সেভাবে কমার সম্ভাবনা ও নেই। ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম থেকে শীতের প্রকোপ কমতে পারে এখন ওঠানামা যেমন করছে তখন একটা জায়গায় সমান্তরালে চলবে সেরকমই জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর থেকে তবে এ মাসের শেষে যথেষ্ট জাঁকিয়ে শীত পড়ার কথা জানিয়েছে বিশেষজ্ঞরা।

কলকাতার বিভিন্ন এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে অতিরিক্ত পরিমাণে কুয়াশা এবং রোদ না ওটাই ঠান্ডার প্রকোপ ছিল বেশ ভালই। কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় ঠান্ডার প্রকোপ রয়েছে ভালোই। পাকসারকাস কলকাতার বেশ কয়েকটি জায়গায় ভালো রকম ঠান্ডা পড়েছে এবং ফাঁকা জায়গায় দমকা হওয়ার প্রবণতা অনেক বেশি এবং সেখানে বায়ুর গতিবেগ অনেক বেশি তাই ঠান্ডায় কাতরাচ্ছে মানুষ। ফুতপাত বাসী মানুষদের জন্য অনেক বেশি কষ্টের হয়ে উঠেছে এই দিনটি বিশেষ আবহাওয়াতে সাধারণ মানুষের সমস্যা বেড়েছে অনেক বেশি। কোথাও কোথাও সর্দি-কাশি তার সাথে সাথে কোনভাবেই দুশ্চিন্তা যাচ্ছে না তাই এই মুহূর্তে আবহাওয়ার কথায় জুড়ি মেলা ভার কখনো ঠান্ডা কখনো গরম আবার কখনো বা হালকা শীতের আমেজ।

পশ্চিমবঙ্গ তথা কলকাতা এবং পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় থাকবে এই রকম ঠাণ্ডা খুব বেশি হলেও জানুয়ারি মাস পর্যন্ত। এভাবে ঠান্ডার প্রকোপ অনুভব করতে হবে মানুষের তার সাথে সাথে বৃষ্টির প্রবণতা কমলেও বায়ুর গতিবেগ ঘটলেও সকালে প্রায় দিন কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়া থাকবে। এই বেশ কয়েকটা দিন শীতের প্রকোপ থাকবে তবে মাঝে কয়েকটা দিন শীতের প্রকোপ কমলেও সেভাবেও অসুবিধায় পড়তে হবে না মানুষের কিন্তু সপ্তাহ খানেক এর মত ভাল রকম ভাবে কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়া থাকবে সাথে সাথে এই মাসের শেষে আরো অনেকটা পারদ নামবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন