আজ চতুর্থী, এর মধ্যেই দুর্গা পুজা নিয়ে জনস্বার্থে মামলার রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট! হাই কোর্টের রায় মানতে হিমসিম খেতে হচ্ছে পুজো কমিটিকে

0
The Pujo Committee will have to abide by the High Court's verdict in the public interest case
হাই কোর্টের রায় মানতে হিমসিম কাচ্ছে পুজো কমিটি

হাজার সংবাদ ডেস্ক: করোনা এখন ঊর্ধ্বমুখী আর এদিকে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা হাজির করা হয়েছে। সেই মামলায় কলকাতা হাইকোর্ট থেকে জনস্বার্থের জন্য জানানো হয়েছে যে পুজো হলেও সেই পুজো মণ্ডপে ঢুকতে পারবে না কোন দর্শনার্থী। পুজোমণ্ডপে ঢোকার নো এন্ট্রি’ বোর্ড ঝুলিয়ে তবে প্রত্যেকটা পুজো মণ্ডপে পূজা করতে হবে। এবার পুজা মন্ডপ কে ভাবতে হবে আইসোলেশন কারণ পুজোমণ্ডপে এবছর ঢোকা যাবে না। করোনা পরিস্থিতি যখন তুঙ্গে ঠিক সেইসময় সামনে এসেছে বাঙালির সেরা উৎসব দুর্গোৎসব আর সেই দুর্গোৎসব সেরা ভাবে করার জন্য রাজ্যের তরফ থেকে বিভিন্ন রায় থাকলেও জনস্বার্থের মামলায় কলকাতা হাইকোর্ট থেকে অন্য রকম নির্দেশ মিলেছে। আজকের চতুর্থী আজকের দিন থেকে শুরু হয়েছে সেই মামলার রায় এবং কার্যকরী ও করতে বলা হয়েছে আজকের থেকে।

কিন্তু তা কিভাবে সম্ভব? এভাবে পুজো করতে গেলে সমস্যা বাড়বে অনেক বেশি কারণ উত্তর কলকাতার অনেক বারোয়ারি পুজো থেকে শুরু করে থিম পুজো রয়েছে যারা সবাই অলিগলিতে পুজো হয় কিন্তু যথেষ্ট নামিদামি পুজো সেই পুজো তে ঠাকুর দেখতে গেলে অনেক সমস্যায় পড়তে হতো সাধারণ মানুষকে এবং শুধু তাই নয় সেই পুজোতে শুধুমাত্র একটাই গেট থাকতো ইন এবং আউটের জন্য। কিন্তু হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী এবারে ইন এবং আউটের জন্য আলাদা গেটের ব্যবস্থা তো রাখতেই হবে তার সাথে মানতে হবে আরো অনেক বিধি-নিষেধ। এবারের পুজোর প্রস্তুতি প্রায় শেষ হয়ে গেছে সেখানে নতুন করে প্যান্ডেল কিরকম ভাবে সম্ভব। অন্য রকম পরিকল্পনাতে করা হয়েছে সেই প্যান্ডেল। তাহলে দূর থেকে ঠাকুর দেখতে পারবে কি করে সবাই। তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছে পুজো কমিটি। তারা জানিয়েছে হাইকোর্টের রায় মানতে গেলে কিভাবে পূজা করা সম্ভব তারা এটাও জানিয়েছে পুজো এবছর পুরোপুরি অর্থহীন কারণ এভাবে পুজা করে কোন লাভ নেই। যেসব প্যান্ডেল খোলামেলা করা হয়নি অর্থাৎ একটু নিচু করা হয়েছে সেসব প্যান্ডেলের দূর থেকে কিভাবে দেখবে প্রতিমা এবং দর্শনার্থীরা যদি ভেতরে ঢুকতে পারে তাহলে দর্শনার্থীদের প্যান্ডেলে আসার দরকার কি এরকম জানিয়েছে অনেকে।

তবে অনেক পুজো কমিটি জানিয়েছে যে তারা প্রায় 6 ফুট দূরত্ব রেখে গোল ব্যারিকেড করেছে আর সেই ব্যারিকেডের মধ্যে দাঁড়াতে হবে একজন একজন করে এক দিকে এবং আরেকদিকে আউট গেট করেছে ঠিক কথা কিন্তু হাইকোর্টের রায় অনুযায়ী জানানো হয়েছিল যে ছোট প্যান্ডেল এর জন্য 5 মিটার দূরে অর্থাৎ প্যান্ডেল থেকে 5 মিটার দূরে রাখতে হবে রোড ডিভাইডার ব্যারিকেড কারণ তার ভেতরে আর কেউ ঢুকতে পারবে না। আর বড় প্যান্ডেল এর ক্ষেত্রে দূরত্ব রাখতে হবে 10 মিটার। ব্যারিকেডের ওপারে থাকবে সমস্ত দর্শনার্থীর সেই সূত্রে জানানো হয়েছে কারা ঢুকতে পারবে প্যান্ডেলের ভেতরে। এবং প্যান্ডেলের ভেতর ঢুকতে পারবে না দর্শনার্থীরা। হাইকোর্টের রায় অনুযায়ী জানিয়েছে যে যারা প্যান্ডেল কর্তৃপক্ষ কিংবা পূজা কমিটির সদস্যরা ঢুকতে পারবে তবে ছোট প্যান্ডেলের ক্ষেত্রে 15 জন এবং বড় প্যান্ডেল এর ক্ষেত্রে 25 জন করে ঢুকতে পারবে।

তবে তাদের নাম আগে থেকে হলফনামায় করে প্যান্ডেলের বাইরে ঝুলিয়ে দিতে হবে। তাদের বাইরে অন্য কেউ বা অন্য কোন দর্শনার্থী প্যান্ডেলের মধ্যে ঢুকতে পারবে না। শুধুমাত্র দেখাশোনা এবং উপযাজক হয়ে সমস্ত কাজ করছে যারা পুজোর জন্য তারাই ঢুকতে পারবে প্যান্ডেলের মধ্যে। সেরকমই জানিয়েছে হাইকোর্টের তরফ থেকে এই জনস্বার্থের মামলায় এটাই জানা গিয়েছে। তার সাথে তারা জানিয়েছে যে ভার্চুয়াল পুজোতে অনেক বেশি নজর রাখুন। প্রত্যেকটা টিভি চ্যানেলে দেখানো হবে প্রত্যেকটা পুজো 360 ডিগ্রি এংগেল থেকে। প্রত্যেক পূজার নিজের চোখের সামনে দেখতে পাবে তাই প্যান্ডেলে আশা কমান।

আজ চতুর্থী কলকাতায় এখন থেকেই শুরু হয়েছে পুজা প্যান্ডেল হপ্পিং অন্যান্য বছর। আর এই পুজোয় হঠাৎ করেই সুপ্রিম কোর্টের আজকের রায় অন্যদিকে সেদিকে পুজো কর্মীরা এবং বিভিন্ন কমিটি কিভাবে তাদের পুজো সামাল দেবে তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছে। এভাবে পূজা করা কিভাবে সম্ভব। যেখানে পুজোর প্রস্তুতি শেষ হয়েছে সেখানে আবার নতুন রায় দিলে সামাল দেওয়া মুশকিল। আগে থেকে জানা থাকলে সেভাবে ব্যবস্থা নিতে পারত তারা। বিশেষ করে উত্তর কলকাতার যে সমস্ত ছোট জায়গায় পূজো হয় সেই সুযোগে তারা কিভাবে তাদের জায়গা বের করবে ইন এবং আউটের জন্য। তার থেকেও বড় কথা 5 মিটার দূরত্বে কিভাবে রাখবে তাদের সেই ব্যারিকেড তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছে তারা। তবে তারা সেই জন্য আলাদা আলাদাভাবে ব্যারিকেডও করছে যাতে দর্শনার্থীদের কোন অসুবিধে না হয়।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন