হাথরাসের ধর্ষিতার পরিবারের পাশে দাঁড়াবেন কোন পয়সা না নিয়ে, আশ্বাস দিয়েছে নির্ভয়া কান্ডের আইনজীবী! দোষীদের ফাঁসির জন্য লড়তে চান তিনি

0
The lawyer of Nirbhaya Kand wants to fight on behalf of the family of Hathras rape case
নির্ভয়ার আইনজীবী

হাজার সংবাদ ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের এই মর্মান্তিক ঘটনার পাশে দাঁড়াচ্ছে নির্ভয়া কাণ্ডের আইনজীবী। ধর্ষিতার বাড়ির লোকের অভিযোগ যে মর্মান্তিক ভাবে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। তার পরে তার জিভ কেটে নেওয়া হয়েছিল। সেই সমস্ত ঘটনার জেরে সারাদেশ এখন উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছে একটা তদন্তের আশায় সঠিক শাস্তি যেন পায় ধর্ষকরা। উত্তর প্রদেশের পুলিশ প্রশাসন সঠিকভাবে সাহায্য করছে না ধর্ষিতার পরিবারকে। আড়াল করার চেষ্টা করছে দোষীদের। বিভিন্ন দিক থেকে রাজনৈতিক দলগুলিকে আটকে রাখছে কোনোরকম ভাবনা আসে আর ঠিক সেই সময় নির্ভয়া কাণ্ডের বিচারপতি জানায় যে তিনি বিনামূল্যে সঠিক বিচারের জন্য সাহায্য করবেন তার জন্য কোন পয়সা লাগবে না কোন ফি লাগবে না অথচ তিনি এর প্রমাণ করতে চান। নির্ভয়া কাণ্ডে তিনি পাশে ছিলেন ধর্ষিতার পরিবারের আর এবারেও তিনি একইভাবে পাশে থাকতে চান বলে জানিয়েছেন।

২০১২ সালে ঘটে যাওয়া নির্ভয়া কাণ্ডের সঠিক বিচার পাইয়ে দিয়েছে সীমা কাশওয়া তিনি যথাযথ লড়াই করেছেন 8 বছর লড়াই করার পর ২০২০ সালের ১৪ ই মার্চ অভিযুক্তদের ফাঁসির কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়। অনেক যুদ্ধ করতে হয়েছে তাকে কিন্তু অবশেষে নির্ভয়া কাণ্ডের সমস্ত অভিযুক্তদের শাস্তি দিতে পেরেছেন তিনি। আর সেই সাহস নিয়ে এবারেও তিনি বিনামূল্যে হাতড়াসের এই ধর্ষিতার বাড়িতে ফোন করেছিলেন এবং ফোনে তাদের কথা হয়েছে যে তিনি এই কেস লড়তে পারেন এবং সঠিক বিচার করতে পারেন। পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে তাদেরকে অনেক সহযোগিতা করতে চাইছে। ধর্ষিতার পরিবার নয় সারা দেশ বাসী তাদের কাছে অনেক বেশি কৃতজ্ঞ এইরকম আইনজীবিদের জন্য।

সুপ্রিমকোর্টে তিনি এই কেসের নিয়ে মামলা রজু করতে চলেছেন। তিনি তাদের হয়ে লড়তে চান এবং সেই পরিবারকেও জানিয়েছে তা নিয়েছে। তিনি সেখানে যেতে চান সেই এবং সব কিছু যাচাই করতে চাই খুব তাড়াতাড়ি। সেখানে রওনা দেবেন এবং তাদের সমস্ত ঘটনা তদন্ত করবেন এবং প্রথম থেকে শেষ অব্দি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের পর তিনি এই মামলায় দোষীদের শাস্তি দেওয়া আশ্বাস দিয়েছেন। তার জন্য তিনি যা করার করবেন সঠিক পদক্ষেপ নেবেন। ধর্ষিতার পরিবার থেকে জানানো হয়েছে যে তাকে নির্মমভাবে অত্যাচার করার পর মাঠের মধ্যে ফেলে রেখেছিল শুধু তাই নয় তার গায়ের সমস্ত হাড়ভাঙ্গা ছিল এবং তার সাথে তার জিভ কেটে নেওয়া হয়েছিল। দোষীদের জেন ফাঁসি হয় তাঁর আবেদন করেছে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন