আরও কিছু ছাড় মিলল সিনেমা ও সিরিয়াল শুটিংয়ের!

0
chief minister made rule for serials and movie
শুটিংয়ে কিছু ছাড় মিলল

হাজার সংবাদ ডেস্ক: গত ১১ জুন থেকে শুরু হয়েছিল সিরিয়ালের শুটিং। এবং ১৫ ই জুন থেকে সেই সিরিয়াল টেলিকাস্ট দেখতে পেয়েছে দর্শকরা। এবার মুখ্যমন্ত্রী নবান্নে সোমবার দিন বিকেল বেলায় আর্টিস্ট ফোরাম সাথে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এবং স্বরূপ বিশ্বাস ও ইম্পা ফেডারেশন এবং প্রডিউসারদের নিয়ে বৈঠক ডেকেছিলে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। এই বৈঠকে বেশ কিছু ছাড় মিলেছে সিরিয়াল শুটিং এবং সিনেমার শুটিংয়ে।

যদিও সিরিয়ালের শুটিং শুরু হয়েছে কিন্তু এখনও পর্যন্ত সিনেমার শুটিং গুলো শুরু হয়নি। এবার শুরু হবে সিনেমার ইনডোর শুটিং গুলি। তার সাথে রাজ চক্রবর্তী এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছে যে আউটডোর শুটিং এর অনুমতি দেওয়ার জন্য। এবং সিরিয়ালের ক্ষেত্রে আর্টিস ফোরাম জানিয়েছে ৩৫ জন নিয়ে কাজ করতে যথেষ্ট অসুবিধায় পড়েছে তারা। সরকারি নিয়ম মেনে ৩৫ জনকে নিয়ে কাজ করা যায়না। খুবই অসুবিধা হচ্ছে, তাই তারা আবেদন করেছে কিছু ছাড়ের জন্য। ৩৫ জন ছাড়াও প্রোডাকশন হাউসের আরো অনেকেই থাকে তাদেরকে নিলে অনেক বেশি তাই ৩৫ জনের, এই নিয়মটা বাড়ানোর দাবি করেছে প্রোডাকশন হাউস।

তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৩৫ জনের জায়গায় ৪০ জন বাড়িয়েছে। সেই সংখ্যা এবং এখন রিয়েলিটি শোর গুলো করা যেতে পারে তবে দর্শকহীন ভাবে তা গুলো চলবে। এছাড়াও যদি কোন আর্টিস্ট এবং কোন অভিনেতা-অভিনেত্রীর করোনা টেস্ট করানো হয় বা কোভিড আক্রান্ত হয় তাহলে বেসরকারি হাসপাতাল গুলোতে বিনা পয়সায় চিকিৎসা করা হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তিনি জানিয়েছেন যে রাজ চক্রবর্তী এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় এর আবেদন অনুযায়ী আউটডোর প্রোগ্রামের অনুমতি দিয়েছেন।


কিন্তু তিনি আরও জানিয়েছেন যে সমস্ত এলাকাগুলিতে কম জনবহুল এলাকা সেই সমস্ত এলাকাতেই আউটডোর শুটিং এর ব্যবস্থা নিতে হবে। আগে গিয়ে জায়গা পরীক্ষা করার পর সেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে আউটডোর শুটিংয়ের ক্ষেত্রে। এবিসয়ে পরমব্রত এবং রাজ চক্রবর্তী কে নিয়ে একটি কমিটি গঠন হবে সেই কমিটির মাধ্যমে নির্ধারিত সিদ্ধান্ত ও নির্দেশাবলী দেওয়া হবে। এখন আপাতত কোন রিয়েলিটি আওয়ার্ড শো হবে না। ২৪ শে জুলাই প্রত্যেক বছর নজরুল মঞ্চে উত্তম কুমারের জন্ম জয়ন্তী পালন করা হয় কিন্তু এ বছর তার হবে না। সেখানে যারা সম্মানপ্রাপ্ত এবং পুরস্কারপ্রাপ্ত তারা তাদের পুরস্কার ঠিক সময় তাদের হাতে পেয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শুধুমাত্র নিরাপত্তা এবং সুরক্ষা বজায় রেখে এই নিয়ম হাঁটছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন