বন্ধ হচ্ছে ধারাবাহিক, জি বাংলা সহ কয়েকটি চ্যানেলের

0
Technicians will not start shooting if they do not get enough money
বন্ধ হল শুটিং

হাজার সংবাদ ডেস্ক: হাজার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হওয়ার পরেও বন্ধ হলো ধারাবাহিকের শুটিং। কবে শুরু হবে আর কিভাবে সমস্যার সমাধান হবে তা বোঝা খুব মুশকিল। এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি যে এই সমস্যার সমাধান করবে কি করবে না। করোনা আবহে বন্ধ ছিল ধারাবাহিকের শুটিং তবে 15 ই মে থেকে শুরু হয়েছে আবার ধারাবাহিকের শুটিং সঙ্গে টেলিকাস্ট দেখতে পাচ্ছিল সাধারণ মানুষ। শুটিং শুরু হওয়ার আগে অঙ্গীকার করা হয়েছিল যে লকডাউন এ কাজ বন্ধ থাকলেও টাকা কাটা হবেনা টেকনিশিয়ানদের।

টেকনিশিয়ানদের দাবি তারা এখনো পর্যন্ত ইন্স্যুরেন্সের কাগজ ও পায়নি এবং প্রতিশ্রুতিবদ্ধ যা কিছু কথা হয়েছিল তার কোনো সুযোগ-সুবিধা তারা পাননি। তাই 3 আগস্ট এর মধ্যে যদি সেই সমস্ত কাগজ এবং সুযোগ-সুবিধা না মিলে তাহলে আর কোনো ভাবেই কাজ করবে না। বেশ কয়েকটি চ্যানেল থেকে তারা তাদের বাকি টাকে মেটাচ্ছেনা বলে দাবী টেকনিশিয়ানদের। সান বাংলা ও জি বাংলা এই প্রতিশ্রুতি রাখছে না স্টার জলসা তাদের টাকা যদিও পূরণ করছে। যদি তাদের টাকা তাড়াতাড়ি মেটানো সম্ভব হয় তাহলে আবার চালু হবে ধারাবাহিকের শুটিং তা না হলে পুরোপুরি বন্ধ থাকবে ধারাবাহিকগুলোর শুটিং। কারণ এই রকম পরিস্থিতিতে তাদের পক্ষে এভাবে কাজ করা সম্ভব নয়।

এরমধ্যে রিম্পা ফেডারেশন সভাপতি অরূপ বিশ্বাস জানিয়েছেন যে বেশ কয়েকটি চ্যানেল তাদের প্রতিশ্রুতি রাখলেও জিবাংলা এবং সান বাংলার মতো চ্যানেল প্রতিশ্রুতি রাখছে না। তার মধ্যে যদিও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন যাই কিছু হয়ে যাক না কেন ধারাবাহিকের শুটিং বন্ধ করা যাবেনা কিন্তু এবার আর তার কোন তোয়াক্কা নেই বন্ধ হয়ে গেল ধারাবাহিকের শুটিং। রিম্পা ফেডারেশন থেকে জানানো হয়েছে যে বেশকিছু প্রযোজক ঐদিন শুটিং রেখেছিলেন এবং টলিউডের সিনেমার শুটিং শুরু না হওয়ায় সেই প্রযোজকের বক্তব্য যে, আগে থেকে জানানো না হইনি তার জন্য যে ব্যবস্থা করা হয়েছে তার খরচ মেটাবে কে? আগে থেকে কোনো প্রস্তুতি নেওয়া হয়নি হঠাৎ করেই টেকনিশিয়ানদের সমস্যা দেখা দিলে যদি বন্ধ করা হয় তাতে সমস্যায় পড়ছে প্রযোজক সহ কলাকুশলীরা।

আরও পড়ুনঃ আর মাত্র দুমাসের অপেক্ষা, সাধ খাওয়ার সুন্দর ছবি পোস্ট অভেনেত্রীর

শুটিং হওয়ার কথা ভেবেই তারা সবাই ফ্লোরে এসেছিল কিন্তু তাদের ফ্লোর থেকে ফিরে যেতে হয়েছে। তার মধ্য ছিলেন রানী রাসমনির শেডের সবাই কিন্তু সেদিন শুটিং হয়নি। এছাড়াও যমুনা ঢাকি ও কাদম্বিনী সিরিয়ালের সমস্ত কলাকুশলীরা উপস্থিত ছিলেন সেদিন একইভাবে তাদেরকেও ফিরে যেতে হয়েছে শ্যুটিং বন্ধ থাকায়। তারাও এসে জানতে পেরেছে যে শুটিং হবে না। তাদের এই কারণের জন্য সবাইকে হ্যারেজমেন্ট করানো ঠিক নয় জানিয়েছে এক প্রযোজক। এরপরেও টেকনিশিয়ানরা জানিয়েছে যে তাদের প্রাপ্ত টাকা না পেলে তারা কোনোভাবেই শুটিং শুরু করবে না। এর আগে বহুবার ডেট দিয়েও টাকা হাতে পাওয়া যায়নি তাই পাওনা টাকা দেওয়ার জন্য একটা চূড়ান্ত দিন ঠিক করার পর আবার শুরু করা হবে শুটিং। তা না হলে তারা কোনোভাবেই কাজে এগোবে না টেকনিশিয়ানরা।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন