শুটিং ফ্লোরে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, জানিয়েছে নিজের কিছু মত

0
Soumitra told some of his own about the shooting
চরনা পরিস্থিতি নিয়ে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের কিছু মতামত

হাজার সংবাদ ডেস্ক: টলিউডে আরও এক বৈশিষ্ট্য কিংবদন্তি, তিনি বলেছেন টলিউড কাজে না গেলে খাবার জুটবে কি করে? তিনি মনে করেন অভিনয়টা দায়িত্ব। তিনি অভিনয় জগতে আজ এত নাম কামিয়েছেন আজ এত বড় জায়গায় দাঁড়িয়েছেন সেকারনে কিছু কর্তব্য থেকেই যায়।

করোনা ভাইরাস সত্যিই একটা ভয়ের কারণ কিন্তু তা বলে বাড়িতে বসে থাকলে কি করে হবে। এই জ্যেষ্ঠ কিংবদন্তির বয়স ৮৫ বছর। তিনি তার পরেও কাজের জন্য এগিয়ে আসছেন। লকডাউনে তাঁর বয়োপিকে শুটিং করতে আসছেন আজ। লকডাউন থাকায় বায়োপিকে বেশ কিছু শুটিং বন্ধ ছিল। এবার বাকি অংশটুকু নিয়ে শুট করতে আসছে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এর আগে 8 জুলাই শ্যামল মিত্রের পরিচালিত সময় ছবির শুটিং শেষ করেছেন তিনি। আজ থেকে তিনি তাঁর বায়োপিকে শুটিং করবেন যদিও সেখানে খুব বেশি শুটিং বাকি নেই তিন চার দিনের কিছু কাজ রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ চিনা মাঞ্জার ব্যবহারে কোলকাতায় পুলিশ টহলদারি

কিন্তু তাও তিনি সেই শুটিংয়ের কাজে যাবেন আজকে থেকে। তিনি জানিয়েছেন এই রকম একটা অবস্থা দেখে ভয় পাওয়াটা খুব স্বাভাবিক কিন্তু তার মধ্যেও সচেতন এবং নিরাপত্তা বজায় রেখে আমাদের চলতে হবে। কাজ বন্ধ করলে মানুষ খাবে কি আর তাছাড়া এটাই আমাদের কর্তব্য কারণ আমরা এই কাজটা খুব অল্প বয়স থেকেই বেছে নিয়েছি এটাই আমাদের জীবনের ব্রত তাই পরিস্থিতি যেমনই হোক না কেন আমাদেরকে কাজে বেরোতে হবে।

যথারীতি তিনি বিভিন্ন নিয়ম এবং নিরাপত্তা মেনে শ্যুটিং-এ আসছেন। আগে তিনি যখন কাজে আসটেন তখন বাড়ির খাবার নিয়ে আসতেন এবং এখনও তিনি বাড়ির খাবার নিয়ে আসছেন। সাথে সমস্ত নিরাপত্তা বজায় রাখছে। হাতে হ্যান্ড গ্লাভস মাস্ক এবং সবকিছু মেনে ফ্লোরে যাচ্ছেন যাচ্ছেন। এই কথা শেয়ার করার সময় তিনি বলেছেন যে মানুষ হিসেবে অনেক দায়িত্ব আছে যেমন পরিবারে সাংসারিক দায়িত্ব এবং কর্ম ক্ষেত্রে এই শুটিং এর দায়িত্ব। মানুষের আমোদ-প্রমোদের একটা জায়গা আমাদের থেকেই আসে তাই এই সময় বাড়িতে বসে থাকা সম্ভব নয়। এই দায়িত্বটা আমরা পালন করতে বাধ্য। অভিনেতা হিসেবে যে দায়িত্ব আছে মন দিয়ে পালন করতে চাই সেখান থেকেও এক পা সরে আসতে চায়না।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন