সালমান খানের পরিবারে করোনার থাবা! নিজেদের কে আইসোলেশন রেখেছেন প্রিয় ভাইজান

0
Salman Khan's family is now going to isolation
আইসোলেসন আছেন ভাইজান

হাজার সংবাদ ডেস্ক: এবার করোনা সংক্রমনের থাবা সালমান খানের পরিবারে। আগের মত একই রকমভাবে সমস্ত অভিনেতা অভিনেত্রী শুধু নয় প্রত্যেকটা মানুষ সচেতনতা অবলম্বন করছে কিন্তু তারপরেও বহু মানুষের সংক্রমণ হচ্ছে। বিভিন্ন অভিনেতা-অভিনেত্রী তাদের নিজেদের সচেতনতা বজায় রেখে মানুষের বিনোদনে যাতে আনন্দ পায় তার জন্য নিজেদের কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে এবং চলচ্চিত্রে বলিউড-হলিউড এবং টলি ফিল্ম এখন আবার ব্যস্ততম হয়ে উঠেছে তাই সংক্রমিত হওয়ার খুব স্বাভাবিক একটা ব্যাপার।

আগের থেকে অনেক বেশি সংক্রমণ ছড়িয়েছে সে তুলনায়। তবে সেভাবে সংক্রমনের বোঝা যায়নি টলিউড অভিনেতা অভিনেত্রীদের থেকে অনেক বেশি সংক্রমিত হয়েছে বলিউড অভিনেতা অভিনেত্রী। তাদের মধ্যে বিভিন্ন অভিনেতা-অভিনেত্রী যেমন রয়েছে ঠিক একই ভাবে এবার ভাইজানের শরীর অসুস্থ হয়ে পড়ার কথা সামনে উঠে এসেছে। কারণ তার ড্রাইভার এবং গাড়ির চালকসহ সহকর্মী টেস্টে পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে তাই তিনি তাকে নিজেকে রেখেছে অর্থাৎ নিজের বাড়িতেই আইসোলেশন করছেন এবং বাড়ির সমস্ত মেম্বারকে আইসোলেশন পালন করতে বাধ্য করেছেন। তিনি তার বাড়িতে সপরিবারে একসাথে আইসোলেশন মেন্টেন করছে যদিও এখনো পর্যন্ত সেভাবে রিপোর্ট করানো হয়নি। তবে সেই রিপোর্টে রেজাল্ট কি আসবে হতেও পারে পজেটিভ আর নেগেটিভ হতে পারে তবে সময়ের অপেক্ষা।

বেশ কিছুদিন আগে সালমান খানের পরিবারে একটি অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল। বিবাহ বার্ষিকীর অনুষ্ঠান ও ক্যান্সেল হয়ে যায় এই কোভিদ পরিস্থিতির জন্য। কারণ তার পরিবারের সবাই যেহেতু এখন আইসোলেশনে রয়েছে তাই সেই অনুষ্ঠানে এই মুহূর্তে বন্ধ করা হয়েছে। আর তারা নিজেরাই নিজেদের সচেতনতা মাথায় রেখে বাড়িতেই থাকছেন এবং নিজেদের আইসোলেশন এর ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ট্রিটমেন্ট করাচ্ছে তারা।

করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই বিভিন্ন রকম ভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে ছিলেন সালমান খান। বিভিন্ন ভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেয়েছিলাম শুধু করোনা পরিস্থিতি নয় তিনি এর আগেও বহু মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। দরিদ্র মানুষের সাহায্য করেছে এছাড়াও বিভিন্ন পরিবারের দায়িত্ব তিনি আজ নিয়ে রেখেছেন। তাদের কি এখনো সাহায্য করে চলে যারা দিন আনে দিন খায় তাদের মত মানুষের অনেক বেশি সাহায্য করেছে এবং নিজের যে সমস্ত ওয়াকসপ হয়েছে সেই সমস্ত ওয়াকসপ এর সঠিক ভাবে নির্দ্বিধায় দান করেছেন এবং সেই মানুষ আজ করোনার মুখোমুখি হয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত ধরা পড়েনি তার ক্ষেত্রে তবে নিজেদের আইসোলেশন এবং সচেতনতার জন্য তিনি অনেক বেশি ভালো থাকবেন আর তার জন্যই তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা সালমান খানের করণা পজিটিভ শুনে অনেকেরই মন খারাপ তার কারন ভাইজানের অনেক ভালো ভালো কাজ মানুষের মুগ্ধ করেছে। আর সেই কাজের জন্য ভাইজানকে অনেক বেশি ভালোবাসে বাংলার মানুষ তথা বোম্বে আর্টিস্ট হিসেবে। তিনি শুধুমাত্র মানুষের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন তা নয় অনেক বেশি অনেক বড় বড় কাজ করে মানুষের মনোনয়নে সাহায্য করেছে আনন্দ দিয়েছে আর সেই সমস্ত কারণে তিনি আজ মানুষের মনে কোথাও একটা বড় জায়গা করে নিয়েছে খুব তারাতারি। তার পরিবার এবং তার আরোগ্য কামনা করছে শহরবাসী এবং সবাই চাই তিনি খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে বাইরে আসুক আর কোনভাবেই যেন করোনা রিপোর্ট পজিটিভ না আসে তার জন্য। এবং তার পরিবারের জন্য আইসোলেশন থাকুক এবং সচেতন থাকুক সবাই এটাই চাই এবং তিনিও নিজেকে সেভাবে বন্দি করে রেখেছে এবং সচেতনতা অবলম্বন করছেন।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন