এখন জেল হেফাজত থেকে মুক্তি নয়! ৬ই অক্টোবর পর্যন্ত জেলে থাকবেন রিয়া

0
Riya will remain in jail till October 6
জেল থেকে এখন ছাড়া পাবে না রিয়া

হাজার সংবাদ ডেস্ক: মৃত্যু তদন্তের জন্য চালু হয়েছিল মামলা কিন্তু সেই মামলায় এখন মাদককাণ্ডের সাথে জড়িয়ে পরেছে। তবে প্রথম থেকে শুরু করে এখনো পর্যন্ত রিয়া চক্রবর্তী কে নিয়ে যে কথা চলছিল তা যে সত্যিই তা বোঝাই গেছে। এনসিবির তরফ থেকে রিয়া চক্রবর্তী কে যেদিন গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তার তিনদিন আগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কে। রিয়া চক্রবর্তী প্রথম থেকেই জানিয়েছিল সুসান্ত সিং এর এই মাদকচক্রের কোনোভাবেই তিনি যুক্ত নন বরং সুসান্ত সিং এর মৃত্যুতে তার কোন হাত ছিল না কিন্তু একের পর এক বিভিন্ন প্রমাণ সামনে আসায় তা প্রকাশ পেয়েছিল যে তিনি জড়িয়ে রয়েছেন এবং এনসিবির তরফ থেকে সেই সূত্রে গ্রেপ্তারও করা হয় রিয়া কে।

১৪ ই জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাটে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন সুসান্ত সিং রাজপুত তবে সেই মৃত্যুকে আত্মহত্যা নাকি জোর করে খুন করা হয়েছিল তা এখনও সামনে আসেনি। সেই তদন্ত করতে গিয়ে বহুবার মাদকচক্র সামনে এসেছে আর সেই মাদকচক্রের জন্য নারকটিকস কন্ত্রল ব্যুরো থেকে একের পর এক তদন্ত চালানোর পর বোঝা গিয়েছিল যে এর মধ্যে রয়েছে অনেক বড় মাদকচক্র। যাতে বলিউডের অনেক বড় বড় প্রভাবশালী ব্যক্তিদের নাম জড়িয়ে রয়েছে আর তার জন্যই সুসান্ত সিং এর মৃত্যু রহস্য সামনে আসতে দিচ্ছিল না কেউ। যদিও প্রথম থেকে শুরু করে এখনো পর্যন্ত রিয়া চক্রবর্তী কে নিয়ে একের পর এক বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে তবে মাদকচক্রের অভিযোগটা একেবারেই সত্যি তার জন্যই এনসিবির তরফ থেকে গ্রেপ্তার অভিনেত্রীকে।

প্রথমেই ৮ই সেপ্টেম্বর রিয়া চক্রবর্তীর ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কে গ্রেপ্তার করে এনসিবি এবং তারপরে চক্রবর্তীর নাম সামনে আসা বিভিন্ন বয়ান শোনার পর গ্রেপ্তার করা হয় রিয়া চক্রবর্তী কে। সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর পর থেকে বিভিন্ন কারণে রিয়ার নাম উঠে এসেছে এবং রিয়া চক্রবর্তী হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট দেখে জানা গিয়েছিল যে তিনি মাদক চক্রে যুক্ত রয়েছে। শুধু তিনি নয় তার আরো অনেক বড় চেন রয়েছে যদিও তিনি সেখানকার সবথেকে বড় লিডার এইরকমই জানা গেছে সূত্রের খবর অনুযায়ী।

যদিও রিয়া চক্রবর্তী কে গ্রেপ্তার করার পর রিয়া চক্রবর্তী জামিনের জন্য আবেদন করেছিলেন মুম্বাইয়ের বিশেষ আদালতে। রিয়া চক্রবর্তীকে জামিন দেওয়া হয়নি কারণ এনসিবি জানিয়েছিল যে আরো অনেক জেরা বাকি আছে তাই রিয়া চক্রবর্তী যদি এখন বাইরে আসে তাহলে অনেক প্রভাবশালী মানুষের সাথে অনেক বড় বড় প্রমাণ লোপাট করবে। তার জন্যই তাকে জামিন দেওয়া হয়নি। তবে রিয়া চক্রবর্তী ১৪ দিনের জেল হেফাজতে থাকার কথা ছিল। সেই ১৪ দিন শেষ হওয়ার আগেই আবারো সেই সময়সীমা বেড়ে গেল ৬ অক্টোবর পর্যন্ত। জেল হেফাজতে থাকবেন রিয়া চক্রবর্তী সেইরকমই জানা গিয়েছে। তবে রিয়া এরপরও আবারো জামিনের আবেদন করেছেন যদিও আগামীকাল তার শুনানি রয়েছে বোম্বে হাইকোর্টে। আদৌ কি তিনি জামিন পাবেন নাকি ৬ অক্টোবর পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকতে হবে এনসিবির নির্দেশ অনুযায়ী তা জানা যাবে আগামীকাল শুনানির পর।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন