গ্রেপ্তার হতে পারে রিয়া! নিজে মুখেই শিকার করেছে সুশান্তকে মাদক দ্রব্য দিতেন রিয়া

0
Riya used to take drugs to Sushant
সুশান্তকে মাদক দিতেন রিয়া

হাজার সংবাদ ডেস্ক: গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রিয়া চক্রবর্তী নামে। সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর পর থেকে রিয়া চক্রবর্তী নামে এখনো পর্যন্ত বিভিন্ন রকম অভিযোগ উঠেছে এবং জানা গিয়েছে তিনি নাকি মাদকচক্রের জড়িত। এবারে নতুন করে সিবিআই এবং ইডির তরফ থেকে জেরাবাদ করা হয়েছিল। সেখানে জানা গিয়েছিল সুসান্ত সিং কে মদ খাইয়ে নেশাগ্রস্ত করে রাখা হতো এবং তার জন্য সুসান্ত সিং বেশিক্ষণ ঘুমাতেন। তবে রিয়া চক্রবর্তী তখন নিজেই জানিয়েছিলেন তিনি মাদক নেন না রিয়ার আইনজীবী জানিয়েছিলেন যে তার মক্কেল কোনভাবেই মাদকদ্রব্য সেবন করেন না।

তাহলে রিয়া চক্রবর্তী কেন মাদকদ্রব্যের সঙ্গে জড়িত তা যদিও বিচার করে বের করেছে এনসিভির তরফ থেকে। এনসিবির তরফ থেকে রিয়া চক্রবর্তী ভাই সৌভিক চক্রবর্তী কে দু’দিন আগেই গ্রেফতার করেছে এনসিবি। আলাদাভাবে তদন্ত করার জন্য আবেদন করেছে এনসিবি সিবিআইইয়ের কাছে। তবে এডি ও সিবিআই তদন্ত হবে ঠিক কথা কিন্তু বেশ কিছু অভিযোগ প্রমাণ ছিল যার জন্য রিয়া চক্রবর্তী আবারো জেরা করার জন্য ডাকা হয়েছিল এনসিবির দপ্তরে। সেই দিনে রিয়ার সামনে ছিল এবং তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী ও সামুয়েল মিরান্ডা। এই দুজন মাদকদ্রব্যের সঙ্গে জড়িত ছিল এবং সৌভিক চক্রবর্তী আরো দুজনের নাম বলেছিলেন তবে এবং সৌভিক চক্রবর্তী কে সামনে রেখে রিয়া চক্রবর্তী কে জেরা করা হবে বলে জানানো হয়েছিল।

সেখানে রিয়া চক্রবর্তী স্বীকার করেছেন যে সুসান্ত সিং কে মাদকদ্রব্য দিতেন তিনি। তিনি মাদকদ্রব্য দেওয়ার জন্য এবং শ্যামুইয়েল মিরান্ডাকে মাদকদ্রব্য আনতে বলতেন তবে তিনি নাকি কোন মাদকদ্রব্য সেবন করতেন না। এই নিয়ে তিনি বলেছেন কিন্তু আদৌ সত্যি কিনা তা জানা যায়নি কিন্তু তিনি তাহলে কেন সুশান্তের দিদির নামে দোষ দিচ্ছে। তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে বারবার। তার জন্য আজকের তথ্য-প্রমাণ ও অভিযুক্ত নামে করা সমস্ত গ্রেপ্তারি পরোয়ানার প্রমাণ পেয়েছে এনসিবি। তাই সোমবার দিনের যে জেড়ার হওয়ার কথা ছিল তার তরফের বলা যায় সোমবার দিনকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে রিয়া চক্রবর্তী কে। অবশেষে রিয়া স্বীকারোক্তি মিলেছে এনসিবির তরফে। যদিও সিবিআই এবং ইডির দপ্তর থেকে আবারও রিয়াকে জেরা করা হবে।

সৌভিক চক্রবর্তী গ্রেপ্তারের পর রিয়া চক্রবর্তী স্বীকার করেছে তিনি মাদকদ্রব্যের সঙ্গে জড়িত এবং সুসান্ত সিং কে মাদক খাওয়ানোর জন্য তিনি মাদকদ্রব্য দিতেন সুশান্ত কে। প্রথমে রিয়া কেন তার দিদিদের দোষ দেওয়া দিয়েছিল। এ নিয়েও প্রশ্ন করেছেন সিবিআই তরফ থেকে। যদি এখনও বেশ কিছু তথ্য জানা বাকি রয়েছে এনসিবির। সোমবার দিন অর্থাৎ আজকের এনসিবির তরফ থেকে একটা জেড়া করার কথা হয়েছিল এবং আজকের জেড়ার পরে ঠিক করা হবে গ্রেপ্তার হবে কি হবে না রিয়া চক্রবর্তী। তবে তথ্য-প্রমাণ রিয়া চক্রবর্তী গ্রেপ্তারের দিকেই কথা বলছে। তাই হয়তো রিয়া চক্রবর্তী গ্রেপ্তার হতে পারে এবং এর তরফ থেকে তা জানা গিয়েছে। এখনো পর্যন্ত তদন্ত করছে এনসিবি এই মাদক কান্ডের এর সঙ্গে যুক্ত কারা এবং এর সঙ্গে কি রকম ভাবে টাকা লেনদেন হতো? এবং এই সঙ্গে আরো কোন নম্বরে বিজনেস যুক্ত আছে কিনা? কালোবাজারি কোন বিজনেস যুক্ত কিনা তা নিয়েও তদন্ত করবে এবার। কাদের জন্য এই বিজনেস চলত এবং কিভাবে চলত তার সমস্ত প্রশ্ন এবং প্রসিডিউর মেইনটেইন করা হত। তা এনসিবি তরফে খজখবর নেওয়া হচ্ছে।

তা নিয়ে আজকে জেরা হবে রিয়া চক্রবর্তী কে। সৌভিকের কথা শুনে মনে হয়েছিল রিয়া চক্রবর্তী তাদের মাথা। রিয়া চক্রবর্তী সবকিছু করেন তাহলে এই বিজনেস এর সঙ্গে যুক্ত আছে যারা উপর থেকে এসব কাজ করছে। এবং এই ব্যবসার কালোবাজারি কিরকম ভাবে টাকা নয়ছয় হতো তা নিয়েও কথা বলবে এনসিবি রিয়ার সাথে। এদিকে সুসান্ত সিং এর পরিবার তা নিয়ে যথেষ্ট খুশি কারণ সুসান্ত সিং এর পরিবার এবং সুসান্ত সিং এর দিদি জানিয়েছে এবার হয়তো ভাইয়ের সঠিক বিচার পাচ্ছে কারণ আমরা চেয়েছিলাম সঠিক বিচার প্রক্রিয়া হক। প্রথম থেকে মিথ্যে বলেছে রিয়া তারপর আস্তে আস্তে বের হচ্ছে। আসলে আমার ভাইকে ওই মাদক দ্রব্য খাইয়ে মৃত্যুর দিকে বাধ্য করেছে। কিংবা তাকে মেরে ফেলা হয়েছে। আমরা সঠিক প্রমাণ চাই এবং এখনও বলবো সঠিক প্রমাণ এলে আমরা সিবিআই যে ভরসা করব তা নিয়েও সুসান্ত সিং এর দিদি লিখেছেন।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন