গ্রেপ্তার করা হয়েছে সুশান্ত বান্ধবি রিয়া চক্রবর্তীকে! আজ বেশ কিছু মেডিক্যাল টেস্ট করানো হবে বলে জানিয়েছে এনসিবি

0
Riya has been arrested for using drugs
মাদক সেবন করতেন রিয়া

হাজার সংবাদ ডেস্ক: টানা তিনদিন জেরা চলার পর গ্রেপ্তার করা হয়েছে রিয়া চক্রবর্তী কে। কয়েকদিন ধরে এনসিবির তরফ থেকে এরকম আভাস মিলেছিল যে কোন দিন গ্রেপ্তার করা হতে পারে রিয়া কে। এনসিবির তরফ থেকে গ্রেপ্তার হয়েছে রিয়া চক্রবর্তীর। তিনি মাদক সেবন করতেন এবং সাথে মাদকদ্রব্য ব্যবসায়া ও করতেন। এতদিন ধরে তিনি বলেছিলেন যে তিনি মাদকদ্রব্য সেবন করেননি কখনো এবং তার আইনজীবী ও জানিয়েছিলেন যে রিয়া চক্রবর্তী কখনো মাদকদ্রব্য সেবন করেন নি। বরং সুসান্ত সিং মাদকদ্রব্য সেবন করতেন তবে এবার তার প্রমাণ মিলেছে।

এতদিন যাবৎ স্বীকারোক্তিতে মানতে চাননি রিয়া চক্রবর্তী এবং তার আইনজীবী ও রিয়া নিজে জানিয়েছিলেন তিনি মাদকদ্রব্য সেবন করেন না। তার জন্য ব্লাড টেস্ট করাতে ও প্রস্তুতি আছেন তিনি। বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যমকেও জানিয়েছিলেন এই কথা। কিন্তু আজ তিনি নিজের মুখে স্বীকার করেছেন তিনি মাদকদ্রব্য সেবন করতেন। এনসিবির তরফ থেকে তাঁকে চিকিৎসা করানো হবে আজ এবং বেশ কিছু টেস্ট করানো হবে রিয়া চক্রবর্তী। রিয়া প্রথম থেকে জানতেন যে ব্লাড টেস্টের মাধ্যমে কখনোই জানা যায় না মাদকদ্রব্য সেবন করে কি করে না। তাই তিনি জোর গলায় এটা বলেছিলেন তবে আজকের এনসিবির কাছে সিকার করেছে নিয়ে যুক্ত মাদক দ্রবের সাথে। তবে বিভিন্ন জিজ্ঞাসাবাদ এবং তার সাথে কিছু টেস্ট করানোর কথা বলায় রিয়া চক্রবর্তী স্বীকার করেন তিনি মাদকদ্রব্য সেবন করতেন আর এই চক্রের জন্য তিনি উপযুক্ত প্রমাণ এবং সত্যি কথা বলাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি মাদকদ্রব্য ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এবং তিনি নিজেও মাদকদ্রব্য সেবন করতেন তার জন্য গ্রেপ্তার হয়েছে রিয়া চক্রবর্তী কে।

প্রথম থেকেই তিনি বিভিন্ন রকম ভাবে কথা বলেছেন এবং মাদকদ্রব্য সেবন করা নিয়ে তিনি একটু ঘুরিয়ে কথা বলেছিলেন তাও নিজে স্বীকার করেননি তিনি মাদকদ্রব্য সেবন করেন। তিনি বলেছিলেন মাদকদ্রব্য সেবন করেন সুশান্ত, আমি শুধুমাত্র ধূমপান করেছি কখনো মাদকদ্রব্য সেবন করি নি। কিন্তু সোমবার এনসিবির জিজ্ঞাসাবাদে তিনি হালকা আভাস দিয়ে রেখেছিল কিন্তু স্বীকার করেননি বরং বলেছিলে সুসান্ত সিং এর সিগারেট যখন তিনি খেতে তিনি নাকি আলাদা স্বাদ গ্রহণ করতেন। তাই সুশ্নাত মাদক নিলেও আমি মাদক সেবন করিনি।

তিনি কখনও মাদকদ্রব্য সেবন করেন নি আজকে তার কথাই প্রমাণ হয়েছে এবং সুসান্ত সিং মাদকদ্রব্য সেবন করত এটা ঠিক কথা সেটা অল্প বিস্তর অনেক আগে থেকেই। কিন্তু সেই মাদকদ্রব্যের ডোজ বাড়িয়ে দিয়েছিলেন রিয়া চক্রবর্তী ও তার ভাই সৌভিক। আর তার পরেই তিনি সুসান্ত সিং বেসি ঘুমাতেন এবং নেশা গ্রস্ত হয়ে থাকতেন। আর সেই সমস্য রিয়া সুশান্তের টাকা পয়সা হাতিয়ে নিয়ে আরো বেশি করে মাদকদ্রব্য ব্যবসার জন্য উদ্যোগ নেন। সেটাও বুঝতে পেরেছিল সুশান্ত এবং তাকে অসুস্থ করে দেওয়া হচ্ছিল। আর তার জন্যই হয়তো এই মৃত্যু। এই মাদক ব্যবসার সাথে হইত যুক্ত আছে তারই আত্মহত্যার কোন সূত্র মনে করছে এনসিবি।

তবে রিয়া চক্রবর্তী তার কথা স্বীকার করায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং তাকে আদালতে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে বিচার হবে তবে এখনই রিয়া চক্রবর্তী কে ছাড়া হচ্ছে না। তার কারণে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার মধ্যে সবথেকে বড় লক্ষ হল আরও বেশ কিছু জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তার জন্যই। এই গ্রেপ্তারি সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে রিয়া চক্রবর্তী। এটা আজকে প্রমান হয়েছে তিনি আমদক নেয় থিক সেভাবেই হুত শিকার করবে সুশান্ত সিংইয়ের মিত্ত্রুর কারন। তিনি প্রথম থেকেই যে কথা বলে এসেছিলেন আজকে তার বিপরীত দিকে পালটি খেলেন। তাই প্রত্যেকটা দিক থেকে আস্তে আস্তে প্রমাণ হয় তো মিলবে। প্রথম থেকেই চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে সমস্ত প্রমান ছিল আর আজও তিনি নিজে বাধ্য হয়ে স্বীকার করেছেন এই কথা।

এই মাদক ব্যবাস্য জড়িয়ে রয়েছে আর অনেক বড়ো বড়ো মাথারা এছারাও আর অনেক রাজনৈতিক দলের মাথারা তাই কড়া জেরা রিয়া করা হবে রিয়া কে। মাদক ব্যবসায় জরিত তার ভাই সৌভিক এবং সুশান্ত সিংয়ের ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে অনেক আগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল আর আজ সুশান্তের প্রেমিক তথা বান্ধবি রিয়া চক্রবর্তীকে। সুশান্ত সিংয়ের মৃত্যু যে স্বাভাবিক নয় তা আসতে আসতে প্রমান হচ্ছে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন