কোভিড টেস্ট করাতে রাজি নয় রেখা, বার বার ফিরিয়ে দিচ্ছে প্রশাসন কে

0
Rekha does not agree to test corona
ক্রনা পরীক্ষা করতে রাহি নই রেখা

হাজার সংবাদ ডেস্ক: বেশ কয়েক দিন ধরে বহু অভিনেতা এবং অভিনেত্রী দের করনা সংক্রমণের জন্য বার্তা বহন করছে সম্প্রতি কিছু সংবাদ মাধ্যম। এর মধ্যেই যখন অমিতাভ বচ্চনের পজিটিভ ধরা পরল তার পরের দিনই রেখার বাড়িতে নিরাপত্তারক্ষীর পজেটিভ। সেখান থেকে নিরাপত্তারক্ষীকে হাসপাতালে পাঠানো হয় এবং রেখার বাড়ি সিল করে দেওয়া হয়। বাড়ির আশেপাশের সমস্ত জায়গা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তার বেশ কয়েকদিন পরে জানা যায় আর ও সহকর্মীদের রিপোর্ট পজিটিভ। তারপর থেকে একেবারে বন্ধ রেখা ফ্ল্যাট বাড়ি।

মুম্বাই পুলিশ কর্মী প্রশাসনের সুবিধা নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই রেখার বাড়ি সেনিটাইজড করতে চাইছে এবং তার সাথে আরো বাকি সদস্যদের পজিটিভ কিনা তার টেস্ট করতে চাইছে। কিন্তু তার জন্য সচ্ছল ব্যবহার করছে না এই অভিনেত্রী। কেন তিনি তার বাড়িতে ঢুকতে দিচ্ছে না এবং সেনিটাইজড করতে দিচ্ছে না তার উত্তর এখনও মেলেনি।

বহুদিন ধরে পুলিশকর্মী এই একটা কাজের জন্যই বারবার রেখার বাড়ি ঘুরছে কিন্তু পুলিশকর্মীকে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। প্রশাসনের কোনো লোকজনকে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না সাথে বাড়ি সেনিটাইজড করতে দিচ্ছে না এই অভিনেত্রী। অভিনেত্রী এবং তার সাথে যে সহকর্মী থাকে ফারজানা নিজে জানিয়েছে, যে কভিড টেস্টের জন্য যা কিছু কথা বলার তা ম্যাডামের সাথে বলার পর বাড়িতে আসবেন তা না হলে আমি কোনমতেই দরজা খুলতে পারবো না। তার জন্যই সে নিজেই পুলিশকর্মীকে ফোন নম্বর দিয়েছে কিন্তু ফোন নম্বর দিলেও কোনো কিছু তে রাজি করানো যাচ্ছে না এই অভিনেত্রীকে।

পুলিশকর্মীর আসংখ্যা যদি ফ্ল্যাট স্যানিটাইজার না করা হয় তার জন্য সমস্যা হতে পারে অনেক কারণ তার থেকেও সংক্রমণ ছড়াতে পারে আরো অনেক জনের। মুম্বাইয়ের অবস্থা প্রথম থেকে আমরা যথেষ্ট খাবার রূপ দেখেছি তাই এখন যখন পরিস্থিতি টা একটু হাতের মধ্যে রয়েছে, হয়তো সংক্রমণ বাড়ছে কিন্তু আগের থেকে কম। সেই সময় এই অভিনেত্রীর জেদ কোনমতেই ভাঙা যাচ্ছে না।

তিনি পুরসভাকে জানিয়েছেন যে প্রয়োজন হলে তিনি তার লালা পরীক্ষার জন্য তার লালা রস পাঠাবে পুরসভার কাছে তবে তিনি কেন বাড়িতে কাউকে ঢুকতে দিচ্ছে না এবং স্বাস্থ্যকর্মীকে ও কেন তিনি অ্যালাও করছে না তাঁর কোন উত্তর নেই। তা নিয়ে সংশয় যদিও তিনি জানিয়েছেন যদি টেস্ট করানোর থাকে তাহলে সে নিজে পাঠাবে সেই লালা রস। তবে তা কবে পাঠাবে তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত সংশয় রয়ে গেছে। অভিনেত্রীর এই চিন্তা ভাবনায় প্রশাসনক অনেক চিন্তিত।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন