হাসপাতাল না গিয়ে করোনা চিকিৎসা বাড়িতে করতে হলে মানবেন কি কি নিয়ম! কি কি ওষুধ খাবেন তাও জানুন

0
precautions of corona
হাস্পাতাল না গিয়ে চিকিৎসা করান নিজের বাড়িতে

হাজার সংবাদ ডেস্ক: বাড়ি বাড়ি জর একবারও আমরা ভাবি নি যে এই জ্বরের কারণ কি। হ্যাঁ এখন একটা জ্বর হচ্ছে ভাইরাস জ্বর হতেও পারে এই জ্বরে অনেকেই মারা গেছে তবে এটুকু বলতে পারি যে যে জ্বরের জন্য আমরা ভয় পাচ্ছি করোনা বলে লাফালাফি করছি হয়তো তা নয় এখন একটা ভাইরাস জ্বরের জন্য সবাইকে ভয়ে থাকতে হচ্ছে করোনা ভেবে। একটা বাড়িতে যদি সেই ভাইরাস জ্বর হয়ে থাকে বাড়ির প্রত্যেকেরই সেই জ্বর হচ্ছে ভাইরাস গঠিত।

কিন্তু জ্বর হয়েছে বলে ভই পাবেন তা নয় তবে করোনা টেস্ট করান কিংবা আপনার সন্দেহ মনে হলে অবশ্যই করোনা টেস্ট করান, গৃহবন্দী থাকুন সবটাই করুন কিন্তু হাসপাতালে না গিয়ে আপনি চাইলে নিজের বাড়িতে টেস্ট করাতে পারেন নিজে চিকিৎসা করাতে পারেন। হাসপাতালে অনেক ঝুঁকি সেখানে সমস্যা বাড়বে অনেক বেশি। শুধু আপনার নয় আপনার পরিবারের সবাইকে এই টুকুই বলার যে আপনি বাড়িতে থাকুন সুস্থ থাকুন।

আপনার যদি সন্দেহ মনে হয়ে থাকে তাহলে আপনি করোনা রিপোর্ট করান এবং সেই রিপোর্ট নিয়ে বাড়িতে নিজের ট্রিটমেন্ট নিন পজিটিভ হলে। সেটা আপনি বাড়িতে করতে পারেন এখন করোনা হলে শ্বাসকষ্টের সমস্যা অনেক বেশি এবং তার সাথে সাথে রাখা উচিত বাড়িতে বেশ কিছু ঔষধ। আপনি শ্বাসকষ্টের জন্য বাড়িতে একটা অক্সিজেন সিলিন্ডার রাখুন সেখান থেকে যাতে আপনার কোন সমস্যা না হয় যদি অক্সিজেনের ঘাটতি হয়ে থাকে কিন্তু তাও চেষ্টা করবেন আপনার বাড়িতে এরকম একটা ব্যবস্থা রাখার। তার সাথে সাথে যদি বয়স্ক বাবা-মা থাকে তাহলে তাদেরকেও যথাযথ ট্রিটমেন্টে রাখুন পাওয়ার ইমিউনিটি বাড়ানোর জন্য যত খাবার খান প্রথমত আমি বলব কি কি নিয়ম মানতে হবে এই করণা পরিস্থিতিতে আপনি যদি বাড়িতে ট্রিটমেন্ট করেন –

প্রথমত আপনার শরীরের ইমিউনিটি পাওয়ার বাড়ানোর সঠিক মাত্রায় পরিপূর্ণ খাবার এবং পুষ্টিগত খাবার খেয়ে আপনার শরীর ঠিক রাখুন। সাথে সাথে শরীর সুস্থ থাকলে বাড়বে ইউনিটি পাওয়ারও।

যদি আপনার উচ্চ রক্তচাপ থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি পুরো এক মাসের ওষুধ কিনে নিন এবং বাড়িতে সেই ওষুধ সাথে রাখবেন আরো বেশকিছু মেডিসিন তবে আপনার উচ্চরক্তচাপ থাকলে ওষুধ খাওয়া বন্ধ দিলে চলবে না। ওষুধ খাওয়া চালিয়ে যান তার সাথে যদি আপনি করণা পজিটিভ হয় তাহলে আরও বেশ কিছু ওষুধ আপনার বাড়িতে রাখা উচিত এবং বাড়িতে থেকে আপনি নিজে নিজে ট্রিটমেন্ট নিন।

আপনার বাড়িতে সব সময়ের জন্য অর্থাৎ এই করোনা পরিস্থিতিতে যদি আপনার করণা পজিটিভ থাকে তাহলে আপনি অক্সিজেন সিলিন্ডার যেমন রাখছেন তার সাথে ঘনঘন থার্মোমিটারে আপনার তাপমাত্রা মাপার জন্য রাখুন এবং বারে বারে চেক করুন এছাড়াও সকাল-বিকেল করে চারবার আপনি গারগেল করবে করবেন এবং তার সাথে সাথে ভেপার নেওয়ার জন্য বাড়িতে কিনে রাখুন বেটাডিন মাউথ ওয়াস। সেটাও আপনার জন্য অনেক কার্যকরী হবে এবং শুধুমাত্র আপনাকে একটা ঘরে বন্দী থাকা এটা বড় কথা নয় তার সাথে আপনি আপনার নিজের মনটাকে ভালো ভালো রাখুন নেট করুন এছাড়াও বিভিন্ন এন্টারটেইনমেন্ট এর মধ্যে সময় কাটান গান শুনুন সবকিছুই করুন কিন্তু আপনি আপনার ঘরে বন্ধ থাকুন। আপনার থেকে আরো দশ জনকে এই রোগ ছড়াতে দেবেন না। যে সকল মেডিসিন আপনার রাখা দরকার বাড়িতে এই পরিস্থিতিতে সেগুলো হলো “প্যারাসিটামল, বি কমপ্লেক্স, ভিটামিন সি, ভিটামিন ডি। এছাড়াও রয়েছে পুষ্টিকর খাদ্য এবং যাদের এসিডিটির সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য এসিডিটির মেডিসিন বাড়িতে নিয়ে রাখা উচিত।

তবে যাদের রক্তচাপ বেশি তাদেরকে এটুকুই বলার তারা যেন কোনভাবে মেডিসিন বন্ধ না করে এই রকম পরিস্থিতিতে আর প্রতি ঘন্টায় আপনার উচিত অক্সিজেনের লেভেল চেক করা। আপনার অক্সিজেন লেভেল চেক করার জন্য ওই মেশিনটি বাড়িতে কিনে রাখুন তাতে আপনার অনেক বেশি সুবিধা হবে আর তার সাথে সাথে দরকার কোন পরিস্থিতির যদি অক্সিজেন লাগে তাই অক্সিজেন সিলিন্ডার সাথে রাখবেন। ঘরের মধ্যে থাকলে আপনি একটা ঘরে থাকুন এবং তার সাথে আপনি সারাক্ষণ যদি মাক্স পড়ে থাকেন আপনার শ্বাসকষ্ট বাড়তে পারে। তবে আপনি যদি একটা ঘরে বন্ধ থাকেন তাহলে মাস্ক খুলে প্রাণ খুলে নিঃশ্বাস নেওয়ার চেষ্টা করুন এবং তার সাথে সাথে আপনার প্রত্যেক মিনিটে মিনিটে চেকআপ করা দরকার কারণ দ্বিতীয় ঢেউয়ে করোনাভাইরাস অনেক বেশি শক্তিশালী হয়ে উঠেছে। তাই আপনাকেও দরকার তার থেকে অনেক বেশি শক্তিশালী হয়ে ওঠা আপনার শরীরের ইমিউনিটি পাওয়ার বাড়ানো তার সাথে দরকার আপনার এই সমস্ত মেশিন এবং সঠিক নিয়ম কানুন মেনে চলা। তাহলে আপনি জয় করতে পারবেন করোনা কে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন