এক সপ্তাহএর মধ্যে কমবে আলুর দাম, বৈঠকের পর জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

0
Ordinary people are facing difficulties due to increase in the price of potato in the market
আলুর দাম বাড়ায় বিক্ষোভ

হাজার সংবাদ ডেস্ক: বৃহস্পতিবারই গৃহস্থে চক্ষু চড়কগাছ, অতিরিক্ত আলুর দাম বাড়ায় বহু মানুষের সমস্যা বেড়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় একটি সামগ্রী আলু যার দাম এতটা বাড়ায় খুব সমস্যায় পড়েছে সাধারণ মানুষ। প্রতি কেজি তে 28 থেকে 30 টাকা মূল্যে বিক্রি হচ্ছে আলু। বাজারে অত্যধিক পরিমাণে দাম বেড়েছে আলুর। কৃষি উন্নয়ন দপ্তর অনুযায়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই নিয়ে নবান্নে শুক্রবার এক বৈঠকে জানিয়েছিলেন। সেই বৈঠকে শুধুমাত্র আলুর দাম বাড়ানো বৈঠক বসবে বলে জানিয়েছিলেন তবে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বাজার মূল্য বেড়ে যাওয়ায় কিভাবে বিপদে পড়ছে সাধারণ মানুষ তা নিয়ে ভাবার বিষয়।

প্রতি কেজিতে এত টাকা দিয়ে আলু কিনতে নারাজ সাধারন মানুষ, তাতে ক্ষোভ নেমেছে বহু জায়গায়। বুধবার দিন পুলিশ প্রশাসন নিয়ে বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখার পর সবজি মজুত নিয়ে খতিয়ে দেখেছেন সরকার, তবে সেখান থেকে ঘোরার পর জানানো হয়েছে যে শুক্রবার একটা বৈঠক ডাকা হবে কৃষি উপদেষ্টা মন্ত্রীকে নিয়ে। শুক্রবার দিন মুখ্যমন্ত্রীকে কৃষি উপদেষ্টা জানায় যে বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে তারা আলু ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলেছে। তিনি জানিয়েছেন এত দামে আলু বিক্রি করা সরকার থেকে নিয়মে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে এবং সরকার কোনমতেই সাধারন জনতার জন্য এত টাকা দামে বিক্রি করা রাজি নন। এতে প্রচুর পরিমাণে মুনাফা লুটছে ব্যাবসায়িরা। তাই আলুর দাম কমানোর জন্য তিনি ব্যবসায়ীদের কাছে আবেদন জানিয়েছে।

এই অ্যাসোসিয়েশনের অনেকে জানিয়েছে যে 17 টাকা 70 পয়সা আলু কিনে বাজারে 28 থেকে 30 টাকা বিক্রি করা যথেষ্ট অপরাধমূলক একটি কাজ অনেক বেশি মুনাফার জন্য ব্যবসায়ীরা এমন দাম বেঁধে দিয়েছে। তবে তা একেবারেই উচিত নয় এরকম একটা পরিস্থিতিতে নবান্নের নির্দেশ অনুযায়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছে কোনভাবেই বেশি দামে এই নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বিক্রি করা যাবে না।দাম কমানোর আর জিতে পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পাঁচ থেকে ছয় দিন তারা বেশ কয়েকটি বাজারে টহলদারি করবে এবং সেখানে যাতে বাজারের দাম না বাড়ে এবং অধিক লাভ না করতে পারে তার দিকে নজর রাখার কথা বলা হয়েছে।

তবে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে সপ্তাহখানেক এরমধ্যে আলুর দাম অনেকটা কমবে বলে আশা করা যাচ্ছে অনেকে জানিয়েছে পাইকারি দামে আলু কিনে অর্থাৎ কুড়ি থেকে 22 টাকা দামে আলু কিনে 25 টাকা দামে বাজারে বিক্রি করতে হবে এবং মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছে যে 25 টাকা দামে বাজারে আলু বিক্রি হবে বেশ কয়েক দিনের মধ্যে। তবে বেশ কয়েকটি অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে এবছর কৃষি উন্নয়নের জন্য আবহাওয়া একেবারে সুফল ছিল না এ বছর আমাদের জন্য বহু চাষীদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে যদিও কিছু মজুদ আলু রয়েছে কিন্তু তাও এত কম দামে কোনোভাবেই তা বাজারে ছাড়া সম্ভব নয় অনেক চাষিরা সেটা মেনে নিচ্ছে না শুধু রাজ্যে নয় গোটা দেশে আলু একটি নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস দাম যদি এত বাড়ে তাতে সমস্যায় পড়বেসাধারণ মানুষ তাই যাতে দাম না বাড়ে তার জন্য এক ধাপ এগিয়ে পদক্ষেপ নিয়েছে নবান্ন বৈঠকের পর।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন