পরীক্ষার কোন খবর নেই, তবুও 3rd সেমিস্টারের ক্লাসের নির্দেশ দিল কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

0
Notice of Online Classes of 3rd Semester Students, University of Calcutta
3rd সেমিস্টার ছাত্রছাত্রীদের ক্লাসের নির্দেশ

হাজার সংবাদ ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতির জন্য প্রথম থেকে এখনো পর্যন্ত বিভিন্ন রকম ভাবে শিক্ষা ব্যবস্থা তে গোলমাল চলছে কিন্তু সেই গোলমাল কিভাবে মিটবে তা নিয়ে কেন্দ্র বিভিন্ন রকম নিয়ম করলেও কোনোভাবেই তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হচ্ছে না। কেন্দ্রের নিয়ম অনুযায়ী এর আগে বলা হয়েছিল প্রথম এবং দ্বিতীয়ত বছরের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য অবিলম্বে পাশ করিয়ে দেওয়া হবে পূর্ববর্তী বছরের মূল্যায়ন দেখে কিন্তু তার রেজাল্ট এখনো হাতে পায়নি ছাত্রছাত্রীরা এখনও ফার্স্ট সেমিস্টারের রেজাল্ট বেরোয় নি সেখানে থার্ড সেমিস্টার এরেজাল্ট কিভাবে আসবে?

এদিকে প্রাক-প্রাথমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত ভার্চুয়াল ক্লাসের কথা জানিয়েছে কেন্দ্র। এর মধ্যে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জানানো হয়েছে যে তৃতীয় বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের জন্য উল্লেখযোগ্য ক্লাসের আবেদন এবং কিভাবে সেই ক্লাস চলবে তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জানিয়েছে যে কলা বিভাগ সায়েন্স বিভাগ এবং বাণিজ্যিকভাবে বিভাগের সমস্ত সাবজেক্ট এর ফ্ল্যাশ করা হবে এবং থার্ড সেমিস্টার এর ক্লাস এবার থেকে হবে অনলাইন মাধ্যমে। তা নিয়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় তথা স্নাতকোত্তর বিভাগ রয়েছে যে সমস্ত কলেজে সেই সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয় জানানো হয়েছে এই নিয়ম।

সমস্ত নিয়ম জারি করলেও সেগুলো কিভাবে সম্পূর্ণ করা হবে তা ভাবে কে? একে করোনা পরিস্থিতি তার ওপর বেশ কিছুদিন আগে আম্ফান এর জন্য ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং ছাত্র ছাত্রীদের বাড়ীর চাল উড়ে গেছে যারা। এখন তিরপোলের নিচে বসবাস করছে। তাদেরকে কিভাবে ক্লাসের আবেদন জানাবে কলেজ কর্তৃপক্ষ তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছে আর অনেকের কাছে এই বার্তা জানালেও তারা কোনোভাবেই ক্লাস জয়েন্ট করতে পারবে না। যদি ক্লাস জয়েন্ট করতে না পারে তাহলে কেনই বা এই নিয়ম চালু হচ্ছে যেখানে ছাত্রছাত্রীরা থাকবেনা ছাত্র-ছাত্রীদের কিভাবে ক্লাস চলবে অনলাইনে?

যদিও মোবাইলের নেট পরিষেবা কলেজ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য এভেলেবেল কিন্তু সেখানেই এই যে বিপদ ঘটেছে। সেই বিপদের মোকাবিলা করতে গিয়ে সময় চলে যাচ্ছে। তাহলে তারা কিভাবে এই পরিস্থিতিতে মোবাইলে নেট রিচার্জ করে ক্লাস করবে আর তার থেকেও বড় কথা ফার্স্ট সেমিস্টার এর রেজাল্ট এর উপর নির্ভর করে থার্ড সেমিস্টার এর রেজাল্ট অপর। যেখানে ফার্স্ট সেমিস্টারের এখন রেজাল্ট বেরোয় নি সেখান থেকে কিভাবে থার্ড সেমিস্টার এর পরীক্ষার পঠন-পাঠন শুরু হবে তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে এবং কোন কোন সাবজেক্ট চলবে তাতে রয়েছে যথেষ্ট ভাবনা।

আরও পড়ুনঃ ভার্চুয়াল সেশনের মাধ্যমে পঠন-পাঠন করবে ছাত্রছাত্রীরা, নির্দেশ কেন্দ্রের

তবে এই নিয়ম শুধু কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নয় সমস্ত স্নাতকোত্তর বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এই নিয়ম জারি করা হয়েছে তবে সেই নিয়ম মানা কোনোভাবেই সম্ভব নয় তা জানিয়ে দিয়েছে প্রত্যেক কলেজের উপাচার্য তবে তার মধ্যে বেশ কয়েকটি কলেজ জানিয়েছে যে তারা সেই ক্লাসে এগোতে চায়। আবার বেশ কিছু কলেজ স্পষ্টই না বলে জানিয়ে দিয়েছে যে এই কাজ সম্ভব নয় তাদের জন্য কারণ কোনোভাবেই এই পরিস্থিতিতে অনলাইন সেশন নেওয়া সম্ভব নয়। যদিও বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানানো হয়েছে যে সমস্ত সেশন চলবে এগুল ছাড়াও সমস্ত সাজেশন এবং সবকিছু ওয়েবসাইটে আপলোড হবে। ক্লাস করার পর ছাত্রছাত্রীরা চাইলে ওয়েবসাইট থেকে সেই সমস্ত সাজেশন এবং নোট গুলো কালেক্ট করতে পারে। কিন্তু যদি ক্লাস না হয় বা ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে যোগাযোগ না হয় তাহলে সেই খবর কিভাবে পৌঁছাবে তাদের কাছে তা নিয়ে চিন্তায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর কলেজগুলো।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন