সরকারি কর্মচারীদের উপর আরও একটি নতুন ছাড় মুখ্যমন্ত্রী

0
government employee rule
সরকারি কর্মচারীদের জন্য ছাড় মুখ্যমন্ত্রী

রাস্তার যানজট  মুখোমুখি হওয়ায় মুখ্যমন্ত্রী নতুন একটি সুবিধা দিল সরকারি কর্মচারীদের জন্য। ট্রেন চলছে না, রাস্তায় বাস নেই, ওলা এবং  উবের এর দেখা মিলল না অথচ সোমবার থেকেই রাস্তায় বাস চলাচলের কথা বলেছিল  এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। যদিও বাস আছে কিন্তু সেই বাসের সিট না থাকায় কোনো বাস স্টপেজ দিচ্ছিল না। যে যেখান থেকে উঠছে সেখান থেকে গন্তব্যস্থল পৌঁছানো পর্যন্ত সিট খালি নাহলে কন্টাকটার  নতুন কোনো প্যাসেঞ্জার তুলছে না।  স্টপেজ না দেয়ায় প্রত্যেকটা স্টেজে যানজট ছিল তার সাথে সাথে মানুষের ভিড় বার ছিল।  যার জন্য অফিস যাওয়া এবং বাড়ি ফেরার জন্য সোমবার  থেকে যথাযথ সমস্যায় পড়তে হয়েছিল অফিস যাত্রীদের। একেই তো  যান যন্ত্রণা তার সাথে অফিসে আবার  দেরীতে তে হাজিরার জন্য লাল কালি পড়ার দুশ্চিন্তা রয়েছে অফিস যাত্রীরা। এই দু তিন দিনেই মানুষের নাজেহাল অবস্থা। 

তার মধ্যেই সরকারি কর্মচারীদের সামান্যতম দুশ্চিন্তা লাঘব করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করলেন, যে দেরী করে অফিস পৌঁছালেও লাল কালির দাগ পড়বে না অর্থাৎ অফিস হাজিরার উপর কোন লাল কালি পড়বে না।  প্রসঙ্গত তিনি আরও বলেন সরকারি কর্মচারীদের সপ্তাহে ন্যূনতম তিন দিন অফিসে আসতে হবে। এই প্রসঙ্গ ছাড়াও নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়   ঘোষণা করেন সরকারি বাসচালক এবং কন্ট্রাকটারদের  জন্য আলাদা একটি বীমার ব্যবস্থা করা হবে।

তার মধ্যেও তিনি জানিয়েছেন বৃহস্পতিবার থেকে একশো শতাংশ বাস রাস্তায় নামবে। বেসরকারি বাস-মিনিবাস সমস্ত রকম যান রাস্তায় চলাচল করবে যাত্রী পরিবহনের জন্য। অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে রাস্তায় যানজট অনেকটাই কমবে বলে আশা করা যাচ্ছে। যাত্রীদের অফিস যাওয়া নিয়ে যে আশঙ্কা ছিল। আশা করা যায় বৃহস্পতিবার থেকে তা অনেকটাই কমে যাবে এবং পরিস্থিতি অনেকটাই সাধারণ হবে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন