নতুন করে করোনা সংক্রমন নবান্নে, সতর্কতায় প্রশাসন

0
nabanna
নাবান্নে আবারো করোনা সংক্রমন এক আমলার গাড়িচালকের

হাজার সংবাদ ডেস্ক: আবারও করোনাই আক্রান্ত নবান্নের চার গাড়ি চালক। এর মধ্যেই চারজনই আমলা অধিকারীর গাড়ি চালায়। সেই চার আমলা অধিকারী বসেন ১৪ তলায় এবং সেই ১৪ তালায় বসেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই যথেষ্ট ভয়ের কারণ থেকে যাচ্ছে।

এখনো পর্যন্ত তিন দফায় নবান্নের প্রত্যেকটা রুম সেনিটাইজড করা হয়েছে করোনা আক্রান্তের জোরে। এবার একিভাবে সেনিটাইজড করা হবে বলে জানিয়েছে। কয়েকদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী সচিবালয়ের কর্মকর্তা এবং তার সহকারী গাড়িচালকের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। সাথে সাথে সেনিটাইজড করা হয়েছিল সরকারি গাড়ি চালক গাড়ি এবং নবান্নের সমস্ত রুম। পাশাপাশি ওই সহকারীদের হোমে কোয়ারেন্টাইন থাকতে বলা হয়েছিল এবং নমুনাও নেওয়া হয়েছে করোনা পরীক্ষার জন্য।

কলকাতায় সর্বপ্রথম করোনা আক্রান্ত হয়েছিল নবান্নের এক আমলার ছেলের থেকে। আবারো একইভাবে নবান্নে করোনা সংক্রমণে থাবা। এখন আমলা এবং অফিসারদের গাড়িচালককেরা সংক্রমিত হওয়ার খানিক চিন্তা বেড়েছে বলে প্রশাসন মনে করছে। তাই তারা যথেষ্ট সতর্ক বার্তা নিয়ে সাবধানতা অবলম্বন করছে।

প্রত্যেক আমলার গাড়িচালক তাদের নাবান্নে পৌঁছে দেওয়ার পর সারাদিন গাড়ি চালকরা একসাথে বসে একই জায়গায় আড্ডা গল্প করে। তাই সংক্রমণের হার অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করছে তারা।

তাই একই সঙ্গে সেই সমস্ত চালকদেরকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা বলা হয়েছে। সাথে সাথে সতর্কতার জন্য প্রত্যেক দিন গাড়ি সেনিটাইজড করা হবে।

এবং অফিস কর্মচারীদের জন্য বসানো হয়েছে যাতে বেসিন যাতে প্রবেশের সময় হাত ধুয়ে প্রত্যেকদিন কর্মচারীরা অফিসে ঢুকতে পারে। চৌদ্দ তালার নবান্নের ভিআইপি খাবার সরবরাহ করার জন্য একটি ক্যান্টিন রয়েছে তার সুরক্ষা জন্য আপাতত সেটিও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত করা হয়েছে। নবান্নের প্রত্যেক কর্মচারী যে তলায় থাকবে শুধুমাত্র সে তলায় চা খাবার সরবরাহকারীদের কাছ থেকে খাবার গ্রহণ করবে। খাবার সরবরাহকারী দেরকেও বলা হয়েছে একটি তলা থেকে অন্য তলায় না যায়, যে যে তলায় কাজ করছেন সেখানে তিনি দায়িত্ব পালন করবেন এবং তার সাথে সতর্কতা বজায় রাখবে।

এখনো পর্যন্ত প্রয়োজনীয় সুরক্ষা বিধির উপর যথেষ্ট নজর রাখবে বলে মনে করছে প্রশাসন তা নিয়ে তাদের চিন্তা শিখরে সেই অনুযায়ী তারা চিন্তা-ভাবনা ও নিয়েছে এবং প্রত্যেকের যথেষ্ট সতর্ক বিধি সর্তকতা মেনে চলার জন্য প্রত্যেকটা বিধিনিষেধ মেনে চলার প্রয়োজন বলে দাবি করেছে তারা তবে প্রশাসন নানা সুরক্ষা প্রস্তুতি নিলেও আতঙ্ক সম্পূর্ণ কাটছে না এবং গাড়িচালকরা যথেষ্ট চিন্তায় রয়েছে এবং তাদেরকে নিয়ে একটা ভয়াবহতা মানুষের মধ্যে বহন করছে তাই তাদেরকেও যথেষ্ট সুরক্ষা বিধি মেনে চালাতে হবে গাড়ি এবং প্রতিদিনই সেনিটারি করা হবে প্রত্যেকটা গাড়ি।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন