রাখি পূর্ণিমায় রাখির বদলে এবছর পরানো হবে মাস্ক

0
Masks will be given instead of rakhi at Rakhi festival
রাখির বদলে পরানো হবে মাস্ক

হাজার সংবাদ ডেস্ক: এবছর রাখি পূর্ণিমা পালন করা হবে একটু অন্যরকম নিয়মে। প্রত্যেক বছর রাখি পূর্ণিমা অনুষ্ঠান যথেষ্ট জোরকদমে পালন করা হয় বাঙালির শ্রেষ্ঠ ধর্ম শ্রেষ্ঠতম অনুষ্ঠান বলা যায় রাখিপূর্ণিমা অনুষ্ঠানে বাঙালির ঐতিহ্য ধরে রাখার জন্য সম্পর্কের বন্ধন এর জন্য রাখি পড়া একে অপরকে। তবে নিয়ম অনুযায়ী বোন ভাইকে রাখি পড়ানোর প্রথা রয়েছে। শুধু বোন ভাইকে রাখি পড়াবে এটা বড় কথা নয় ভাই এবং বোনের সম্পর্ক সুমধুর রাখতে বাঙালির উৎসব পালন করা হয়।

কোন পরিস্থিতিতে প্রথম থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো ভাবে কোনো অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি যদিও এই অনুষ্ঠান এমন বড় কিছু নয় কিন্তু তাও এই অনুষ্ঠান পালন করার একটু আলাদাভাবে ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখনো পর্যন্ত কোনো পরিস্থিতির জন্য বিভিন্ন পুজো পরিক্রমা সবকিছুই আটকে গেছে বাধাব-বিঘ্ন ভাবে শুরু করা যায়নি ঠিক একই রকম ভাবে রাখি পূর্ণিমা অনুষ্ঠান পালন হলেও। তার যে হাজার বিধিনিষেধ থাকবে এটা খুব স্বাভাবিক। কারণ বিধি-নিষেধ ছাড়া কোনভাবেই কাজ করা এখন সম্ভব নয় এ বছর নতুন উদ্যোগে এগিয়েছে রাখি পূর্ণিমার অনুষ্ঠান কে অবলম্বন করে কলকাতা পুরসভা।

রাখি পূর্ণিমার অনুষ্ঠানের বেইনবারি রাখি না পড়িয়ে এবছর মাস্ক বিতরণ করবে কলকাতা পুরসভা। শুধু পৌরসভা এলাকার নয় পুরসভা পঞ্চায়েত ব্লক বিভিন্ন এলাকায় প্রশাসন মাধ্যমে রাখি পূর্ণিমার রাখি পরানো বদলে এবছর মাক্স বিতরণ করবে কলকাতা পুরসভা। বেশ কয়েকদিন আগে থেকে এক যুব গাং নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা পুরসভার কাছে এবং তারা সেই চিঠিতে জানিয়েছিল তারা এই কাজ করতে যথেষ্ট আগ্রহী। তাদের নির্দেশেই এ বছর স্বাস্থ্যবিধির কথা মাথায় রেখে রাখি পূর্ণিমার অনুষ্ঠানে বিতরণ করবে কলকাতা পুরসভা। নিয়ম অনুযায়ী এবছর রাখি পূর্ণিমার অনুষ্ঠান হলে কলকাতা পুরসভা থেকে রাখি পরানো যেত না বাড়ি বাড়িতে। কারণ এতে যথেষ্ট কারণ রয়েছে তাই রাখি পূর্ণিমা অনুষ্ঠানে রাখি পর থেকে অনেক স্বাস্থ্যবিধি বজায় থাকবে মাস্ক বিতরণ করলে।

এর আগে কৃষ্ণনগর ও বোলপুরে হস্তশিল্পের জন্য যে শিল্পীরা রয়েছে তাদের মধ্যে বেশকিছু শিল্পী ছিল যারা রাখির বদলে তৈরি করছিল মাস্ক। কারন কতারা মনে করেছিল যে রাখি পুরনিমাতে রাখি পরালেও বিপদ বাড়তে পারে তাই রাখির বদলে মাস্ক দিলে এই করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষার সাথে সাথে রাখির অনুষ্ঠানও পালন করা যাবে। এক ডিলে দুই পাখি মারতে তাদের এই উদ্যোগ। আর এবার কোলকাতা পুরসভা থেকেও এই উদ্যোগে এগোচ্ছে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন