বাংলা চালাবে বাংলার মানুষ, বিজেপি নয়! ২১ শে সভায় মুখ্য মন্ত্রীর জবাব

0
Mamata's reply is July 21
কি বললেন মুখ্য মন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়

হাজার সংবাদ ডেস্ক: প্রত্যেক বছরের থেকে এবছর একটু আলাদা করে পালন হয়েছে একুশে জুলাই। একুশে জুলাই কথাটি আর ধর্মতলা চলো কথাটি মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। একুশে জুলাই আসা মানেই ধর্মতলা চলো কথাটা খুব বিখ্যাত ছিল। কিন্তু এবছর সবকিছু মিলিয়ে একটু আলাদা রকম নিয়ম মানতে হয়েছে করোনাভাইরাস এর জন্য। 19 তারিখে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে এবছর কোনভাবেই মঞ্চে বক্তৃতা দেওয়া হয়তো সম্ভব নয়। আরকরোনা মহামারীতে যে অবস্থা তাতে কোনোভাবেই ভিক্টোরিয়ার সামনে ব্রিগেড মাঠে এই সম্মেলন করা হয়ে উঠেনি। তাই এবছর কালীঘাটে নিজের বাড়িতে এই আয়োজন করা হয়েছে শহিদ স্মরণ সভা। কোনোভাবেই বন্ধ দেওয়া যাবে না এই সভা। একুশে জুলাই এর সভা হয়েছে তার বাড়িতেই। বেশকিছু নির্দেশ দিয়ে তিনি এই বৈঠক শুরু করেছিলেন নেত্রী। এই সভায় বিজেপিকে নিয়ে কি কি কথা বলেছেন এবং সভায় নির্দিষ্ট কি কথা হয়েছে তা একবার জেনে নেওয়া উচিত।

সভা শুরুর প্রথমেই জানিয়েছেন শহীদ স্মরণ এবং শহীদদের অজস্র প্রণাম এবং শান্তি কামনা করেছেন। তার সাথে তিনি জানিয়েছেন এই বাংলার মানুষের জন্য অনেক ধন্যবাদ বাংলার মানুষ এতদিন পাশে ছিল এবং এখনো পাশে আছে তা নিয়ে অনেক ধন্যবাদ জানিয়েছে। আরো অনেক কথা বলেছেন এই সভায় তিনি জানিয়েছেন যে কোন এক সভায় 19 টা আসন পেয়েছে বলেই গোটা দেশ জিতে ফেলেননি, বিজেপি বাংলাকে জয় করেননি। তবে 2021 সালে একেবারেই বাংলা থেকে সরে যেতে হবে বিজেপিকে। তিনি বারবার জানিয়েছেন সিপিএমের সময়কালীন তাকে নির্যাতিত হতে হয়েছে বিভিন্নভাবে মারধর সমস্ত কিছু সহ্য করেছেন তিনি। আর এবার বিজেপির রাজ্যে বিজেপির রাজত্বে তাকে প্রত্যেকবার প্রতিনিয়ত অপমান করা হয়। এটা কোন দল নয়। যে দল শাসনের বদলে শোষণ করে চলেছে সেটা কোন দল নয়। তাই বাংলা বাঁচাতে বিজেপিকে হঠাতে হবে। গুজরাট কোনদিন বাংলার শাসন চালাতে পারেনা। বাংলা শাসন চালাবে বাংলার মানুষ।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে সমস্ত ব্যাংক সপ্তাহে দুদিন বন্ধ থাকবে! বিস্তারিত জানুন

সাধারণ মানুষের চোখে ধুলো দিচ্ছে কেন্দ্র বুঝতে পারছেনা সাধারণ মানুষ। ঠকতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত তাই এবারে বিজেপিকে হঠাতে হবে। বিজেপি দল বাংলার কোনো সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে না বরং প্রতিনিয়ত বাংলার মানুষকে অপমান করছে সাথে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকেও। আমি এই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী আমার একটা সম্মান আছে কিন্তু সেই সম্মানের দাম দেয়না কেন্দ্র। বিজেপি প্রতিনিয়ত একইভাবে অপমান করে চলেছে প্রতিনিয়ত নিজেদের দোষ ঢাকতে তৃণমূলকে দায়ী করছে। তার পাল্টা জবাব আমরা দেবো তার জন্য 2021 এর বিধানসভা খুব জরুরী। 2021 এর বিধানসভা থাকবেনা কোন বিজেপি বাংলা ছাড়তে হবে বিজেপিকে।

আমরা আর কোন ভাবে এই অন্যায় মেনে নেব না বাংলার জন্য কোন কাজ করেনি বিজেপি বরং বাংলার মানুষকে নির্যাতিত তথা বিভিন্ন রকম ভাবে অত্যাচার করছে। উত্তরপ্রদেশের ঘটনায় আমরা ভালোভাবে বুঝে গেছি বিজেপি কি করতে চাই নিজেরা টাকা লুটপাট করেছে কিন্তু দোষ দিয়েছে তৃণমূলের উপর। নিজেদের দোষ ঢাকতে তৃণমূলকে দায়ী করেছে। টাকা চুরি করেছে প্রতিমুহূর্তে অথচ নিজেরা ভালো সেজে ঘুরে বেরিয়েছে প্রমাণ লোপাট করেছে। কোন দিন দেশের কেউ ভালো চাইলে এই কাজ করতে পারত না। দেশের ভালো যেমন চাইনা সঙ্গে আমাদের রাজ্যের ভালো কোনদিন চাইনি। রাজ্য থেকে কোনদিন তৃণমূল যাবে না তৃণমূল থাকবে সারা জীবন কিন্তু কয়েক দিনের এই পাতি বিজেপিকে সরে যেতে হবে বাংলা ছেড়ে। এটা গুজরাট নয় এটা বাংলা যেটা চালাবে বাংলার মানুষ নিজেই। তিনি কটাক্ষে বহুবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীকে ভাই ভাই বলে অপমান করেছে। তিনি জানিয়েছে তারা যেভাবে চলছে তাতে বাংলা কোন ভাবেই বাঁচবে না। তাদেরকে জিততে দেওয়া যাবে না এবারে জিতবো আমরা। বিজেপির 2021 এর বিধানসভা আবার তৃণমূল নতুন জায়গা পাবে বলে জানিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন