অবস্থার পরিবর্তন হলে মানতে হবে কড়া লকডাউন! ফের পূর্ণ লকডাউনের ইঙ্গিত

0
maintain the lockdown in corona 2nd stage
অবস্থার অবনতি হলে লকডাউন মানতে হবে

হাজার সংবাদ ডেস্ক: মানুষ বিদায় জানিয়েছিল করোনাকে কিন্তু করোনা বিদায় জানায় নি মানুষকে। তাই আবারো ফিরে এসেছে সেই করোনা আর এই করোনা পরিস্থিতিতে মানুষের নাজেহাল অবস্থা। আবার যদি লকডাউন ডাকা হয় তাতে কতটা যে অসুবিধা হবে সাধারণ মানুষের তা হয়তো সবারই জানা। অনেকেই আছে যারা পেটের দায়ে লকডাউন মানতে নারাজ। আগেরবারের লকডাউনে মানুষের অনেক বাজে অবস্থা তৈরি হয়েছিল। আর এবার যদি লকডাউন হয় তাতে আরো অনেক বেশী ক্ষতি হবে এবং তাকে হয়তো অনেক পরিবার ধুলিস্যাৎ হয়ে যাবে অভাবের তাড়নায়।

নিজেদেরকে সতর্ক থাকা উচিত এবং নিজেদেরকে অনেক বেশি সতর্ক করে সচেতনভাবে সচেতনমূলক সমাজ তৈরি করা উচিত যেখানে মানুষ মানুষের থেকে দূরত্ব বজায় রাখবে মাক্স পড়বে এবং পরিস্থিতিতে সমস্ত নিয়মকানুন মানবে। নিজেদের যদি তাগিদ না থাকে কতটা সরকার জানাবে সরকারের তরফ থেকে যে নিয়ম আসবে। তবে এবারে এই পরিস্থিতিতে যেহেতু অনেকটাই বেড়েছে তার জন্য আংশিক লকডাউন এর আওতায় আসছে রাজ্য সরকার। তিনি জানিয়েছেন শুক্রবার থেকে আংশিক লকডাউন থাকবে সেহেতু শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে বিভিন্ন জায়গায়।

আগের মতো বন্ধ হয়ে গেছে মল শপিং মল জিম বিউটি পার্লার সেলুন এবং সুইমিংপুল ও, শুধুমাত্র খোলা থাকবে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনার দোকান। সবজি এবং খাবার দোকান কিংবা ফলের দোকান। এই সমস্ত নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকানগুলো খোলা রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে তার সাথে সাথে অনলাইন মাধ্যমগুলোকে আরো অনেক বেশি সক্রিয় করতে বলেছেন রাজ্য সরকার। অনলাইন পদ্ধতিতে কোন অর্ডার নেওয়া হবে এবং ডেলিভারি ও দেওয়া হবে তাতে কোন সমস্যা নেই তাই অনলাইন অর্ডার বাড়ানো যেতে পারে।

যদি পরিস্থিতির পরিবর্তন হয় তাহলে আবার পূর্ণ লকডাউন ডাকার কথা ভাবা হয়েছে। ভোট গণনার পড়ে অর্থাৎ দুই তারিখের পরে আজকের দিন বোঝা যাবে পূর্ণ লগ্নে আসতে হতে পারে কি পারে না। ভোট গণনার পরে বিজয়ী দলকে কোনভাবেই কোন সভা এবং সম্মেলন কিংবা র‍্যালি বের করতে পারবে না বলে জানিয়েছে হাইকমিশনার তিনি এও জানিয়েছেন যে কোনভাবেই যেন বাইরে কোন সভা কিংবা র‍্যালি না বের হয় বিজয়ী দলগুলোর জন্য আগে থেকেই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

যদি আর বেশ কিছুদিনের মধ্যে অবস্থার পরিবর্তন না হয় করণা পরিস্থিতি করোনা বাড়তে থাকে তাহলে পূর্ণ এবং করা লকডাউন এর আওতায় আসতে হবে বলে জানানো হয়েছে। নবান্ন থেকে এর আগেও কটা লকডাউন ডাকা হয়েছিল পরিস্থিতি অনেক সামলানো গেছিল কিন্তু এখন যদি আবার করা লকডাউন ডাকা হয় তাহলে কত সাধারণ মানুষ মানসিকতা নিয়ে দুশ্চিন্তার বিষয় তবে পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়। আংশিক থেকে কড়া পদক্ষেপ নিতে হবে সমস্ত রাজ্যের শুধু পশ্চিমবঙ্গ। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া আর অন্য যে সমস্ত রাজ্যের পরিস্থিতি বাড়তে শুরু হয়েছে সেই পরিস্থিতির জন্য অনেক জায়গায় করা হয়েছে তবে ভোট গণনার দিনের জন্য অপেক্ষা ছিল শুধুমাত্র তবে শুক্রবার থেকে ভোট গণনার আগে আংশিক লকডাউন ডাকা হয়েছে সেই আংশিক লকডাউন চলছে ভোট গণনা এবং ভোট গণনা শেষ হলে পরিস্থিতির পরিবর্তন যদি হয়ে থাকে তাহলে আস্তে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে পারে। কিন্তু এখন যা পরিস্থিতি রয়েছে তা যদি কোনো পরিবর্তন হয়ে ওঠে তাহলে করা লকডাউন হবে এটা নিশ্চিত জানিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন