রাজ্যে আবার কড়া লকডাউন, কোথায় কি নিয়মে চলবে এই লকডাউন ?

0
lokdown in west bengal
নতুন করে লকডাউন পশ্চিমবঙ্গে

হাজার সংবাদ ডেস্ক: রাজ্যে আবার লকডাউনের সিদ্ধান্ত। কনটেনমেন্ট এবং বাফার জোন গুলোতে কড়া লকডাউনের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর। ৭ জুন নবান্নে বৈঠকের পর জানানো হয়েছে ৯ জুন বিকাল ৫ টা থেকে শুরু হবে করা লকডাউন। তবে এবার শুধু কনটেনমেন্ট জোন গুলো নয় তার সাথে বাফার জোন গুলতেও নজর রাখা হবে।

কোন কোন এলাকা কনটেনমেন্ট বা বাফার জোন, তা ঠিক করবে রাজ্যের সমস্ত জেলা গুলো। প্রশাসন নির্দেশ দিলে তবে সেই সমস্ত এলাকাতে লকডাউনের ব্যবস্থা নেবে রাজ্য। বাফার জোন বলতে যে এলাকা গুলো হালকা নজরে ছিল আর কনটেনমেন্ট জনের মতো এতো বাঁধা ছিলোনা। সেই বাফার জোন গুলকেও এবার লকডাউনের আওতায় ফেলা হবে।

কনটেনমেন্ট এবং বাফার জোন গুলিতে বন্ধ থাকবে সমস্ত সরকারি বেসরকারি অফিস। আর ৭০ শতাংশ কর্মচারী নিয়ে কাজ করা যাবে না। বন্ধ থাকবে সমস্ত সরকারি পরিষেবা। বন্ধ থাকবে সমস্ত যানবাহন। পুরো কড়াকড়ি নিয়ম মেনে পালন হবে লকডাউন। এখন যে ভাবে সংক্রমন বেড়ে চলেছে তাতে বায়ুতেও সংক্রমন ছড়াতে পারে বলে দাবী করছে বিশেষজ্ঞরা। তাই কনটেনমেন্ট এলাকাতে কড়া লকডাউন থাকবে উদ্দেশ্য কার্যকরী হবার জন্য।

একসাথে বাফার ও কনটেনমেন্ট জোন মিলিয়ে কলকাতায় ৪৫ টা জায়গাতে চলবে কড়া লকডাউন। সেই সমস্ত জায়গা গুলো ডাকা হবে লকডাউন তার মধ্যে যাদবপুর, কাঁকুড় গাছী, ফুলবাগান, বিধাননগর, উল্টোডাঙার বেশ কিছু রোড, ভবানিপুর, আলীপুরের বেশকিছু জায়গা রয়েছে। এতো দিন যেমন সাধারণ ভাবে চলেছে মানুষ তা আর সম্ভব নয়। এবার রাস্তায় পুলিশ প্রশাসন দিয়ে কড়া নজর দিয়ে হবে লকডাউন। নিয়ম ভাঙায় প্রশাসন শাস্তি হতে পারে।

মুখমন্ত্র্য মততা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে যে সমস্ত মানুষ এই লকডাউনে সামিল হবে না তাদের জন্য ব্যবস্থা নেবেন। বেশ একাংশ কিছু মানুষ আছে যারা সচেতন নয় বলে হু হু করে বেড়ে চলেছে সংক্রমন কিন্তু এখন আর তা নয়। এবার যাতে আগের মতো না হয় তার জন্য বাফার জোন গুলো নেওয়া হয়েছে যাতে অল্প নজর বন্দি মানুষ বাইরে না আসতে পারে। তাই এবার খুব কঠিন ভাবে পালন হবে লকডাউন। প্রয়োজন হলে বাড়ি বাড়ি খাবার, জল ও আরও অন্যান্য সামগ্রি পৌঁছে দেবে প্রশাসন তাও বাইরে বের হওয়া যাবে না, এই ঘোষণা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন