প্রমান না দিলে ফিরিয়ে দেব পদ্মশ্রী, জানালেন কঙ্কনা রানাউত

0
Kankana ranaut will find out the secret of Sushant's death
মুখ খুললেন কঙ্কনা রানাউত

হাজার সংবাদ ডেস্ক: সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে বহুবার বহু অভিনেতা এবং অভিনেত্রী প্রতিবাদ জানিয়েছে। কঙ্গনা রাওয়াতও প্রথমে সুশান্ত সিং এর মৃত্যুতে বিভিন্ন রকম ভাবে প্রতিবাদ জানিয়েছিল। তার দাবি ছিল এটি ঠিকঠাক প্রমাণ হচ্ছে না এবং মুম্বাই পুলিশের হাতে দেওয়ায় তাঁর মনে হয়েছে ঠিক ঠাক তদন্ত হচ্ছে না। তখন তিনি জানিয়েছিলেন এটা যেন সিবিআই তদন্ত করা হয়। তারপর হঠাৎ করে একদিন আগে তিনি জানান ঠিকঠাক বিচার হোক। যদি আমার দাবি ভুল হয়ে থাকে তাহলে আমি আমার পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দেব। এটা মৃত্যু নয় এটা ঠাণ্ডা মাথায় খুন।

কিন্তু তার এই কথা বলার অনেক যুক্তি রয়েছে। তিনি জানেন তিনি যে কথা বলছেন তার অনেক প্রমাণ রয়েছে বলে বলেছেন। তিনি বলেছেন একজন সুস্থ স্বাভাবিক এবং গুনি সম্পন্ন মানুষ যে শুধুমাত্র অবসাদের জন্য আত্মহত্যা করতে পারে না এমন একজন মানুষ যিনি অবসাদের জন্য আত্মহত্যা করবেন তা আমরা ভাবতেও পারি না। কারণ সুশান্ত মৃত্যুর বেশ কয়েকদিন আগে অর্থাৎ তার শেষ জীবনের বেশ কয়েকটি সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছিলেন যে অভিনয় জগৎ তাকে হয়তো ফিরিয়ে দিচ্ছে বারবার কিন্তু তাই বলে তার জীবন শেষ নয়। তার আরো অনেক জিনিস রয়েছে জা নিয়ে তিনি কাজ করতে পারেন। তিনি তাঁর প্রতিভার কথা জানিয়েছেন এবং বলেছেন যে যদি আমাকে কখনো অভিনয় জগৎ থেকে ফিরে আসতে হয় তাহলে আমি কখনো ফিরে তাকাবো না। আরও অনেক রাস্তা আছে আমাকে প্রকাশ করার। কিন্তু সেই মানুষ হঠাৎ করে শুটিং নেই সিনেমা হাতে নেই বলে তিনি অবসাদের কারণে আত্মহত্যা করবে এটা ভাবা যায় না। আমি সেটা মানিও না।

কঙ্কণা রাওয়াত জানিয়েছে আমি যে কথাটা বলেছি তার অনেক যুক্তিযুক্ত কারণ রয়েছে এবং তিনি বলেছেন তার প্রমাণ যদি করতে না পারি তাহলে আমি অবশ্যই আমার পদ্মশ্রী পুরস্কার ফিরিয়ে দেব। এরপর তিনি জানান তিনি এখন মানালিতে আছে তাই তিন পুলিশকর্মী একজনকে পাঠাতে বলেছেন তাকে জেরা করার জন্য এবং তিনি সেখানে বেশকিছু জবানবন্দি দিয়েছে। কিন্তু তিনি আরো ভালোভাবে জানতে চাইবেন এবং তার কথা সজানাবেন পলিশ কর্মীকে।

আরও পড়ুনঃ মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের সাথে সাথে উচ্চ মাধ্যমিকে তাক লাগানো রেজাল্ট দিতিপ্রিয়ার!

এছাড়াও তিনি আরও বেশ কিছু কথা জানিয়েছেন এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন বেশ কয়েকদিন আগে এক প্রযোজক তাকে বলছিল যে রাকেশ রোশান ও তার পরিবার যথেষ্ট ক্ষমতাশীল, তাদের কাছেযেন আমি ক্ষমা চেয়ে নি তাহলে ভালো আর তা যদি না হয় তাহলে তার প্রাণঘাতী ঘটতে পারে বা জেলেও কাটাতে হতে পারে সারাজীবন। কারাগারে যাওয়ার ভয় পাননি কঙ্গনা রাওয়াত এবং তার পাশাপাশি তিনি তার আগে শুনেছিলেন জেস সুশান্ত সিংয়ের মৃত্যুর আগে তিনি মহেশ ভাটের কাছে গেছিলেন অভিনয়ের জন্য একটি সিনেমার জন্য কিন্তু সেও তাকে ফেরত পাঠিয়েছে এবং অন্য কয়েকজনকে নিয়ে তাকে তুলনা করেছেন যথেষ্ট অপমান করেছেন।

আর এই সমস্ত কথা শোনার পর কোথাও আমার মনে হয় না যে সুশান্ত আত্মহত্যা করেছে। নিজের থেকে এতকিছুর পরেও যে মানুষটি ভেঙে পড়েনি হঠাৎ করে একটা দিনে আবসাদের কারনে আত্মহত্যা করবে এটা ভাবা যায় না। আমি এই কেসটা নিয়ে আবার রিনিউ করব আর যদি আমি হেরে যাই তাহলে আমি আমার পদ্মশ্রী ফিরিয়ে দেবো। আমি এমনি এমনি কোন কথা বলিনা প্রমাণ ছাড়া আমি কোন কথাই বলিনি এটাই দাবি করছেন বারবার।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন