রিলায়েন্সের ঋণ শোধ, বললেন আম্বানি

0
reliance
ধার পরিশোধ করল রিলায়েন্স

ঋণ নিয়ে আর চিন্তা নেই মুকেশ আম্বানির। ঋণ মুক্তি ঘটেছে রিলায়েন্সের শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির। শেয়ার ও রাইটস ইস্যু বেচে ২ হাজার ৩০০ কোটি টাকা এসেছে, সেখান থেকে মুক্তি হল রিলায়েন্সের। অতয়েব আগামী মার্চ মাস পর্যন্ত কোন ঋণের দায় নেই মুকেশ আম্বানির। বাজারে এখন নতুন করে কোনো ঋণের দায় বইতে হচ্ছে না শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির।

রিলায়েন্স সুত্রের খবর আনুজায়ী শুক্রবার এ খবর জানানো হয়েছে যে লকডাউনের বাজারে যখন সবকিছু থমকে গিয়েছিল ঠিক সেই সময়ে ঋণ মুক্তি ঘটেছে রিলায়েন্সের। কিভাবে এই রিন মুক্তি তা জানাতে গিয়ে বলেছে আম্বানি- যে বিদেশি কিছু কোম্পানি এছাড়াও ফেসবুকের কাছে বেশ কিছু শেয়ার বিক্রি করে পেয়েছে ১৫.২ বিলিয়ন ডলার। আর জিওর প্লাটফর্ম থেকে এসেছে ৫৩ হাজার ১৫৩ কোটি টাকা। বিপিপিএসসি নামক একটি সংস্থার কাছে জিও বিক্রি করে শেয়ারহোল্ডারের থেকে এই টাকা মিলেছে বলে জানিয়েছে রিলায়েন্স। জিওর এই পরিকল্পনার জন্য বেশ কিছুদিন আগে অর্থাৎ বছর শুরুতেই অন্যরকম পরিকল্পনা করেছিল মুকেশ। তাই তিনি তার রিলায়েন্স শেয়ারহোল্ডারের কাছে আবেদন করেছিলেন যাতে মার্চ মাসের মধ্যে ঋণ মুক্তি হয় তার জন্য সাহায্য করতে কিন্তু তার আগেই ঋণ মুক্তি ঘটেছে। তার নির্দেশ ছিল যে শেয়ারহোল্ডারদের কাছে তিনি বলেছিলেন ১৮ মাসের মধ্যে যাতে, এই ঋণ মুক্তি ঘটে তার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে কিন্তু তার ৮ মাস এই সেই ঋণ শোধ করা হয়েছে। করোনা সংক্রমণ আগে তিনি তাঁর তেলের ব্যবসা ১৫ কোটি টাকা শেয়ার বিক্রি দিত সৌদি আরবের এক সংস্থার কাছে।

শেষমেষ এই জিওর শেয়ার বিক্রির সময় তখন অনেক নামজাদা কম্পানিরাও এসে ভিড় জমিয়েছিল জিও শেয়ার কেনার জন্য তার মধ্যে ছিল বেশ কিছু বিদেশী সংস্থা এবং ফেসবুকের মত এইরকম একটা বড় সংস্থা ও। তাই লাভডাউনে অনেকেরই ক্ষতি হয়েছে।

কিন্তু জিওর রিলায়েন্স শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির ঋণ শোধ করে। এখন তিনি মাথা উঁচু করে আবার পুনরায় ব্যবসা শুরু করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। রিলায়েন্স ঋণ শোধ করার জন্য বছরের প্রথম দিকে তিনি যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন কিন্তু শেষমেশ তিনি অন্য পরিকল্পনার মাধ্যমে সেই ঋণ শোধ করে দিয়েছেন।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন