রেশন কার্ডকে লিংক করাতে হবে আঁধার কার্ডের সাথে! সব ডাটা সেভ থাকবে একটা সার্ভারে

0
It is mandatory to ration card link with aadhaar card
লিংক করাতে হবে রেশন কার্ড

হাজার সংবাদ ডেস্ক: কেন্দ্রের নিয়মে রেশন কার্ডের সংযুক্তিকরণে লিংক করাতে হবে আধার কার্ড। কেন্দ্র সরকারের আইন অনুযায়ী এর আগে জানানো হয়েছিল রেশন দ্রব্যাদি তুলতে হলে লিংক করাতে হবে আইডেন্টিটি প্রুফ আঁধার কার্ড। সারাদেশে রেশন কার্ড সংযুক্তিকরণ এর জন্য এখন যুক্ত করতে হবে আধার কার্ড। আধার কার্ডের নাম্বার দিয়ে রেশন কার্ড যুক্ত করলে দেশের যেকোন জায়গা থেকে রেশন দ্রব্য দিতে পারবে সমস্ত গ্রাহকরা। তবে এখনও পর্যন্ত সেই নিয়ম কতটা এগিয়েছে তা নিয়ে কোনো নিশ্চয়তা নেই তবে অক্টোবর ৩১ তারিখের মধ্যে সমস্ত রেশন কার্ডের সংযুক্তিকরণ এর কাজ শেষ করতে হবে।

বিভিন্ন রাজ্যের তথা পশ্চিমবঙ্গের রেশন কার্ড নিয়ে যে জালিয়াতি হচ্ছে তার জন্য এই নিয়ম খুব তাড়াতাড়ি বদল করার জন্য কেন্দ্রের বার্তা। তবে এই রেশন কার্ড সংযুক্তিকরণ করলে পরিযায়ী শ্রমিক তথা সাধারণ মানুষ সুবিধা পাবে অনেক বেশি। সেখানে রেশন ডিলার দের নাম উঠবে না বারবার জালিয়াতির খাতে আর থাকবেনা। তখন একজনের জন্য একটাই কার্ড একজনের জন্য একটাই আধার কার্ড সেখানে কোন সমস্যা থাকবে না। রেশন কার্ডের সঙ্গে নিজের আধার কার্ড সংযুক্তিকরণ করলে আইডেন্টিফিকেশন কারো তখন একটা আইডেন্টিটি প্রুফ পরিণত হবে। যেকোনো জায়গায় মানুষ স্থান পরিবর্তন করলে সেখান থেকে তুলতে পারে রেশন যে কোন দোকান থেকে। কারণ সব ডাটা সেভ হবে একটাই সার্ভারে তাই আলাদা করে কোনো ডিলারশিপ দেওয়া থাকবে না। কিছু কাস্টমার একটা ডিলারের আরো কিছু কাস্টমার আরেক ডিলারের তেমন আর হবে না। এখন দেশের সমস্ত কাস্টমার থাকবে একটা সার্ভার এর ওপর সেখানে যে কোন ডিলার দিতে পারবেন দ্রব্যাদি।

কি করে লিঙ্ক করবেন এই রেশন কার্ড আধার কার্ডের সঙ্গে। লিংক করতে হলে আপনি বাড়িতেই করতে পারেন। আপনার নিজের ফোন কিংবা কম্পিউটার থেকে তবে যারা জানেন না তারা চাইলে অফলাইনে করতে পারেন। তবে অনলাইনে করতে হলে কি কি নিয়ম ফলো করতে হবে সেটা আগে জেনে নিন-
প্রথমে আপনাকে আধার কার্ডের ওয়েবসাইটে যেতে হবে তারপর স্টার্ট নও এ ক্লিক করতে হবে। স্টার্ট নাও নামে ক্লিক করার সাথে সাথে একটা ফর্ম আসবে। আপনার সামনে সেই ফর্ম এর মধ্যে আপনি আপনার ঠিকানা দেবেন সাথে সিলেক্ট করতে হবে আপনার জেলা এবং বেনিফিসারী দিয়ে লিখতে হবে রেশন কার্ড। অর্থাৎ বেনিফিসারী অপশন রয়েছে সেখানে ক্লিক করে রেশন কার্ড কে সিলেক্ট করুন। তারপর প্রকল্পের নাম অর্থাৎ প্রজেক্ট এর নাম সিলেক্ট করুন। বাংলাতে হলে প্রকল্প যখন ইংলিশে দেখবেন সেখানে প্রজেক্ট সিলেক্ট করার পর রেশন কার্ড এর পুরো ডিটেলস। সেখানে দিন রেশন কার্ড নাম্বার। রেশন কার্ডের নাম এবং রেশন কার্ডের টাইপ সবকিছু সেখানে যেমন ভাবে দেওয়া আছে ফিলাপ করুন এবং এর সাথে আপনার মোবাইল নাম্বার দিতে হবে। যে মোবাইল নাম্বারের সাথে সাথেই আসবে একটি ওটিপি আপনার মোবাইলে আসা ওটিপি নাম্বার টিকে সেখান দিয়ে দিন দেওয়ার পর পুরো বিষয়টি কমপ্লিট হয়ে যাবে। অর্থাৎ সেখানে আপনার অনলাইনে আধার কার্ডের সঙ্গে রেশন কার্ড লিঙ্ক করা হয়ে যাবে।

এবার আসবো অফলাইন লিংকিং এর ব্যাপারে। যারা অফলাইন লিংক করবেন সবাই অনলাইনে করতে পারবে না। হয়তো যারা পারবে না তারা অবশ্যই অর অফলাইন এর আওতায় আসতে পারেন। অফলাইন এর আওতায় এলে আপনাকে যেতে হবে রেশন ডিলারের কাছে। সেখানে আপনার একটা পাসপোর্ট সাইজ ফটো এবং ফরম ফিলাপ করে তার সাথে দিতে হবে আপনার ব্যাংকের পাস বইয়ের জেরক্স। যেটিতে আপনার মোবাইল নাম্বার লিঙ্ক করা আছে। পাস বইয়ের জেরক্স দিলে তবেই আপনার আধার কার্ড রেশন কার্ডের সঙ্গে লিংক করা যাবে কারণ সেখানে যে মোবাইল নাম্বার দেবেন সেই মোবাইল নাম্বারের সঙ্গে যেন ব্যাংকের পাস বইয়ের লিংক করানো থাকে কারণ এটি অফলাইন প্রক্রিয়া। অফলাইনে যখন এটি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে তখন আপনার কাছে একটি এসএমএস আসবে এবং এই সব প্রক্রিয়া শেষ হলে আবারো একটি এসএমএস আসবে তখন আপনার কাজ সম্পন্ন হবে।

বলা বাহুল্য এই যে বিষয়টি অনেকটা উন্নত। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন রেশন তুলতে পারবেন। আজকে এই নিয়ম এমনটাও নয় কিন্তু আপনি যেখানে থাকেন সেখানে রেশন তুলতে পারবেন সেখানে নিজস্ব ডিলার বলে কোন কথা নেই। সেখানকার রেশন দপ্তর থেকে তুলতে পারবেন আপনার দ্রব্যাদি তবে পুরো বিষয়টি সেভ হবে একটাই সার্ভারে। তাই আপনি যেখান থেকে খুশি সেখান থেকে রেশন তুলতে পারেন। বাড়িতে নেই বলে আপনার কোন অসুবিধা হবে না।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন