পরিস্থিতি পরিবর্তন প্রভাব পরছে শরীরের অপর! নিজের শরীর জত্ন নিন ঘরোয়া টোটকাতে

0
how to improve your body in this weather
সুস্থ থাকুন ঘরোয়া টোটকাতে

হাজার সংবাদ ডেস্ক: এখনকার আবহাওয়া এত বাজে কখন কি রকম ভাবে দিন টা কাটবে তা বোঝা দায়। কখনো দেখো যে ঝির ঝির করে বৃষ্টি পড়ে পথঘাট সবসময় ভিজে স্যাঁতসেঁতে হয়ে আছে আর তার সঙ্গে সঙ্গে শরীর ঠাণ্ডা অনুভূতি। আবার কোনদিন সকাল থেকে ঝলমলে রোদ তখন আবার প্রচন্ড গরম আবার একই দিনে কখনো বৃষ্টি হচ্ছে আবার কখনো রোদ উঠছে তাই এখনকার আবহাওয়া টা খুব বেজায় বিরক্তিকর। যার জন্য আমাদের প্রত্যেক মানুষ এবং বাচ্চাদের অনেক সমস্যা দেখা দিচ্ছে। এক্ষেত্রে বলি প্রত্যেক বাড়িতে জ্বর সর্দি-কাশি লেগেই আছে এই আবহাওয়ার জন্য এগুলো থেকে দূরে থাকা দায়। এমনিতেই এখনকার মানুষের শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা খুবই কমে গেছে। কোন কিছু ভাবেই শরীর খারাপ হলে সাড়তেই চায় না বিশেষ করে এই আবহাওয়া পরিবর্তনের সময় এই জ্বর সর্দি-কাশি থেকে দূরে থাকার জন্য আমরা কিছু ঘরোয়া টোটকা ব্যবহার করতে পারি। এতে যেমন অনেক উপকার পাওয়া যায় সাথে সাথে প্রতিক্রিয়া ছাড়া রোগ নিরাময় করা যায়। যেমনঃ-

তুলসী পাতাঃ-
তুলসী পাতা বাড়িতে নেই এমন বাড়ি পাওয়া যায় না। সব বাড়িতেই তুলসী পাতা পাওয়া যায়। প্রত্যেক বাড়িতে তুলসী গাছ আছে এই তুলসী পাতার গুণ অপরিসীম। আমরা হয়তো জানি যখন আমরা ছোট ছিলাম তখন সর্দি কাশি হলে তুলসী পাতার রস নিয়ে আমাদের মা আমাদের কে খাইয়ে দিতেন। আবারো তুলসী পাতার সঙ্গে মধু মিশিয়ে খেলে সর্দি কাশি তাড়াতাড়ি সেরে যায় এর সাথে সাথে শ্বাসকষ্ট ভাইরাল ফিভারের সংক্রমন কমে। বা অনেক সময় দেখেছি অনেকেই সকালবেলা উঠে তুলসী পাতা চিবিয়ে খায় নিয়মিত খাওয়া গেলে এসব সমস্যা থেকে দূরে থাকা যায়। আর নিমনিয়া ধাত থকলে তাও কমতে থাকে।

গুলঞ্চঃ-
গুলঞ্চ হল একরকম পাতা। এরকম আবহাওয়াতে জ্বর সারানোর জন্য এই পাতা খুব কাজ দেয় গুলঞ্চ। এই পাতায় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে যার জন্য আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে যায়। এই পাতা নিয়মিতভাবে যদি খাওয়া যায় তাহলে জ্বর শ্বাসকষ্ট গলা ব্যথা থেকে দূরে থাকা যায়, এই পাতার রস যদি আপনি কাঁচা না খেতে পারেন তাহলে রান্না করে খেতে পারেন তাতেও অনেক উপকার পাবেন। তবে সব থেকে কাচা পাতার রসে উপকার অনেক বেশি।

পেঁপে পাতাঃ-
পেঁপে পাতার গুন ও আমাদের শরীরে অপরিসীম। পেঁপে পাতার রস একটু তেতো তাই এর সঙ্গে একটু শশা থেতো করে খেলে খুব একটা তেতো মনে হয়না পেঁপে পাতার রস ডেঙ্গু ম্যালেরিয়া এই সব রোগের থেকে মুক্তি দিতে সাহায্য করে। পেপে পাতা তে পটাশিয়াম ম্যাগনেশিয়াম ক্যালসিয়াম আয়রন থাকায় যে কোন রোগের হাত থেকে বাঁচাতে সাহায্য করে সাহায্য করে।

কিসমিসঃ-
কিসমিস একটা মিষ্টি ফল। যা হাজারও রোগ নিরাময়ে বেবহার হয়। এটা আমরা সবাই জানি এটাও প্রত্যেক মানুষের রান্নাঘরে অবশ্যই থাকে। বড় থেকে বাচ্চারাও এটা খেতে খুব পছন্দ করে। কিসমিসে থাকে ইলেকট্রোলাইসিস, ভিটামিন, মিনারেল। কিসমিস যদি নিয়মিত খাওয়া যায় তাহলে জ্বর সেরে যায় তার সাথে সাথে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। পেটের সমস্যাও নিরাময় হই। কিসমিস ভিজিয়ে জল খেলে পেটের ব্যথী কমে যায়।
তবে এই পরিস্থিতিতে নিজের জত্ন নিন শরীর সুস্থ রাখুন ঘরোয়া টোটকাতে। এই অসুদের কোনও সাইট এফেক্ট নেই বরং আপনি অনেক সতেজ ও সুস্থ থাকবেন।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন