বর্ষা কালে উঠে যাচ্ছে গাদা গাদা চুল! প্রতিরোধ করুন ঘরে বসেই

0
hair fall problem for dranduff and rainy day
চুল ওঠার সমস্যা তা কমন একটা সমস্যা

হাজার সংবাদ ডেস্ক: নিজেদের শরীরকে সুন্দর করে নিতে পারি আমরা ঘরের থাআ কিছু উপকরন দিয়ে। প্রাকৃতিক উপায়ে চুলের খুশকি দূর করুন খুব সহজভাবে। চুলে খুশকি প্রত্যেক ছেলে-মেয়ের চুলে হয়ে থাকে। কখনো কখনো বর্ষাতেও হয় আবার শীতেও বিশেষ করে বেশি দেখা যায় এই খুশকি। বর্ষায় চুলটা একটু ভিজে স্যাঁতস্যাঁতে হয়ে থাকে। যতই চুলকে ভালো করে রাখার চেষ্টা করো না কেন বর্ষাকালে চুল ওঠে প্রচুর পরিমাণে। আবার গরমেও আমাদের শরীর যেমন ঘেমে যায় তার সঙ্গে সঙ্গে মাথার ত্বক ও প্রচুর পরিমাণে ঘেমে চুল ভিজে যায়। ঠিকমতো ভাবে পরিষ্কার না করেল চুলে খুশকি দেখা দেয়। যেকোনো কারণে খুশকি যদি একবার শুরু হয় তাহলে নানান রকম খুশকি চালানো শ্যাম্পু মেখেও কোনরকম উপকার মেলে না। কিন্তু যদি আপনারা প্রাকৃতিক উপায় ব্যবহার করেন তাহলে খুশকি থেকে দূরে থাকতে পারবেন। যেমন

নিম পাতা:
নিম পাতা জলের সঙ্গে ফুটিয়ে সেই জল মাথায় লাগালে খুশকি দূর হয়। নিম পাতায় থাকে অ্যান্টি ফাঙ্গাস উপাদান যা মাথায় সব ধরনের জীবাণু থেকেও রোধ করে। আবার এই নিম জল কাজে লাগাতে পারেন শ্যাম্পু করার পরে চুল ধুয়ে দিতে পারেন এই জল দিয়ে। চুলের কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে এই নিমপাতা ফোটানো জল। দু-একটা নিম পাতা সকালবেলা চিবিয়ে খেলে শরীরের পক্ষে যেমন ভালো তার সঙ্গে সঙ্গে চুলের ওপর কাজ করে। এর সঙ্গে একটু মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। বাড়িতে নিমের তেল তৈরি করে নিয়ে চুলে মাখতে পারেন কয়েকটা নিম পাতা নিয়ে নারকেল তেলের সঙ্গে ফূটিয়ে নিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে একটা পাত্রে ছেঁকে ঢেলে রাখুন। রাতে শুতে যাওয়ার আগে এই তেলে সঙ্গে একটু লেবুর রস মিশিয়ে মাথার ত্বকে হালকা হাতে মেসেজ করে মাখুন। রোজ না মাখতে পারলেও অন্তত সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন ব্যবহার করুন উপকার মিলবে খুশকির জন্য। তবে এই তেলটা অবশ্যই রাত্রে মাকার চেষ্টা করুন সকালে কারণ সকালে মাখলে চুলে রোদ্দুর লাগলে ক্ষতি হবে। কিছু নিমপাতা বেটে নিয়ে তার সঙ্গে একটু মধু মিশিয়ে একটা হেয়ার মাক্স বানিয়ে ব্যবহার করতে পারেন চুলে তাতেও ভালো কাজ দেয়। হেয়ার মাক্স টি মেখে মিনিট পনেরো মতন রেখে দিন মাথায় তার পরে শ্যাম্পু করে চুল ধুয়ে দিন। এভাবে ব্যবহার করলে খুশকির সাথে সাথে চুল পড়া ও অনেকটা কমে যায়।

পাতিলেবু:
নিম পাতার পাশাপাশি পাতিলেবু তে কিছু টা কাজ দেয় খুশকি তাড়ানোর জন্য স্নানের আগে লেবুর রস মাথার ত্বকে ব্যবহার করলে খুশকি অনেকটা কমে যায়। স্নানের জলে ও ব্যবহার করতে পারেন এই লেবুর রস। একটা লেবুর রস জলে মিশিয়ে স্নান করতে পারেন এতে খুসকির সমস্যা অনেকটা কমে যায় তার সঙ্গে শরীরের উপর ভালো কাজ দেয়।

আমলকিঃ
আমলকি ও অনেকটা খুশি কমিয়ে দেয়। আপনার চুলের ঘনত্ব অনুযায়ী পরিমাণ করে নিন। আমলকির রসের সঙ্গে একটু গরম করে নেওয়া নারকেল তেল মিশিয়ে নিয়ে সেটা আপনার মাথার ত্বক থেকে পুরো চুলে লাগাতে পারেন এতে খুশকি অনেকটা কমে যায় তার সঙ্গে সঙ্গে চুল পড়া রোধ হয়। চুল কালো করতেও সাহায্য করে।

তাহলে সবাই এই ঘরোয়া উপকরনে তারিয়ে ফেলুন খুসকি যা আমাদের প্রত্তেকের সঙ্গি হয়ে দারিয়েছে। তাই চুল কে আর অযত্ন নয় নিজের চুলের জত্ন নিন নিজেই।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন