বন্ধুর পরিবারের পাশে দাঁড়াতে চেয়েছিলাম! কিন্তু সুশান্তের পরিবার আমাকে মিথ্যে দোষারোপ করছে! জানিয়েছেন সন্দীপ সিং

0
Everyone is slandering me but I am a very good friend of Sushant
সন্দীপ সিং

হাজার সংবাদ ডেস্ক: সুসান্ত সিং এর মৃত্যু হয়েছে 14 ই জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাটে অর্থাৎ নিজের ফ্ল্যাটে তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গিয়েছিল প্রথমে। কিন্তু আদৌ কি তা সত্যি নাকি অন্য কোন চক্র ছিল এর পেছনে। তা জানার জন্য এখনও ইডি ও সিবিয়াই এবং এনসিবির তরফ থেকে যথেষ্ট তদন্ত চালানো হচ্ছে। তবে সিবিআই তদন্ত চালানো হচ্ছে সেই তদন্তের মধ্যে এখনও যুক্ত রয়েছে সন্দীপ সিং এর নাম যিনি ছিলেন সুশান্তের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ একজন বন্ধু। হয়তো বেশ কিছুদিনের জন্য কোন যোগাযোগ ছিল না সন্দীপ সিং এর সাথে অভিনেতার। কোন ছবি নিয়ে দুজনের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়েছিল তাই হয়তো কোন কারনে তাদের সম্পর্ক ভালো ছিল না।

কিন্তু সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর দিন প্রথম থেকেই তিনি ছিলেন বান্দার ফ্ল্যাটে অর্থাৎ প্রথম যখন সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর কথা জানানো হয়েছিল সেখানে নাকি তিনি দেখেছিলেন তার দিদি ছিল এবং তারপর তিনি প্রথমেই মৃত্যুর খবর শুনে সেখানে যান এবং প্রত্যেকটা ভিডিও এবং নিউজ চ্যানেলের সমস্ত ভিডিওতে উঠে এসেছিল সন্দীপ সিং এর ছবি। তিনি দুই তিনদিন পরে জানিয়েছিল যে তিনি নাকি সুশান্ত সিংকে হারিয়ে খুব ভালো একজন বন্ধু তাকে মিস করছে এবং তাদের সাথে সময় কাটানোর মুহূর্ত আবার ফিরে পেতে চাই। তবে এদিকে সুসান্ত সিং এর পরিবার অভিযোগ জানিয়েছে তারা কেউ চেনে না এই সন্দীপ সিং কে। কখনো সুসান্ত তার পরিবারের সাথে মিল করিয়ে দেয় নি।

যদি সুসান্ত সিং এর এত ঘনিষ্ঠ বন্ধু হবে তাহলে সুসান্ত এর পরিবারের সাথে কেন আলাপ করানো হয়নি কিংবা সুসান্ত সিং এর পরিবারের নামটা কেন কখনো শোনেননি তা নিয়েও তারা বারবার প্রশ্ন করেছে। তবে সন্দীপ সিং এর তরফ থেকে সংবাদ মাধ্যমে ইন্টারভিউতে তিনি জানিয়েছেন যে আমি সুসান্ত সিং এর খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলাম। আমরা একসাথে খাওয়া দাওয়া করতাম রেস্টুরেন্টে যেতাম অনেক সময় থেকেছি একসাথে। তাই বলে এই নয় তার বাড়ির লোক জানবে আমি তার প্রিয় ঘনিষ্ঠ বন্ধু হতে পারি। কিন্তু একজন অভিনেতার ঘনিষ্ঠ বন্ধু কারা কারা রয়েছে সেটা তার পরিবারের জানা সম্ভব নয় সব ক্ষেত্রে। কারণ আমি তার বন্ধু সে যদি তার পরিবারকে না বলে সেটা আমার কিছু করার ছিল না। কিন্তু আমরা যে খুব ভালো বন্ধু ছিলাম। এটা আমি বিশ্বাস করি।

সন্দীপ সিং আরো জানিয়েছে যেদিন সুশান্ত সিং মারা যায় সেই দিন আমি অন্যদের মত নিউজ চ্যানেল থেকেই খবর পেয়েছিলাম এমন নয় যে আমি এমনিতেই খবর পেয়েছিলাম আমি খবর পেয়েছিলাম অন্যদের মতো করে তাই নিউজ চ্যানেলের খবর টা দেখে হন্তদন্ত হয়ে ছুটে গেছিলাম কারণ আজ না হলেও সে একটা সময় আমার খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিল। দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য হতেই পারে তাই বলে এমন নয় যে সেই বন্ধুত্ব টা কে আমি ভুলে গেছি। তাই ছুটে এসে ছিলাম ভেবেছিলাম অনেক প্রভাবশালী এবং অনেক আর্টিস্ট হয়তো অলরেডি পৌঁছে গেছে। কিন্তু গিয়ে দেখলাম সুসান্ত সিং এর দিদি ছাড়া সেখানে আর কেউ নেই। তাই সেখানে সুসান্ত সিং এর দিদির পাশে দাঁড়ানো উচিত নাকি সুসান্তের ঝুলন্ত বডি নামানো উচিত বুঝে উঠতে পারছিলাম না। মনে হয়েছিল আমার সমস্ত কাজে এগিয়ে দেওয়া উচিত ছিল সেই মুহূর্তে। আমার কি করা উচিত ছিল সত্যিই আমার জানা ছিল না। ভাই হারানো দিদির পাশে দাঁড়ানো উচিত ছিল নাকি উচিত ছিল সেই সুসান সিং এর পোস্টমাডাম এর জন্য তাকে এগিয়ে দেওয়া।

আমি তখন ঠিক সত্যি বুঝতে পারিনি তাই যেটা করেছি আমি আমার নিজের মন থেকে করেছি এর মধ্যে কোন চক্রান্ত ছিল না। আমি কোনভাবেই সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর সঙ্গে আদৌ যুক্ত নই। কারন আমি প্রথম থেকেই বলেছি আমি সুশান্ত সিং এর হারানোতে অনেক কষ্টে রয়েছি। সম্প্রতি কিছু সংবাদমাধ্যম আমার নামে অনেক কুৎসা রটিয়েছে কিন্তু তাতে আমার ইমেজ অনেক খারাপ হয়েছে অনুরাগীদের কাছে। তাই আজ আমি আমার ইনস্টা পোষ্টের বেশকিছু ভিডিও এবং তার সাথে যুক্ত কিছু ছবি পাঠালাম যাতে আমার ইমেজ নিয়ে সবার এত খারাপ ধারণা না হয়। সন্দীপ সিং রিসেন্টলি তার নিজের ইনস্টাগ্রাম আইডি থেকে বেশ কিছু ছবি সবাইকে শেয়ার করেছে এবং অনুরাগীদের সঙ্গে শেয়ার করে নিয়ে জানিয়েছেন যে এত কিছু যদি করার থাকতো তাহলে কখনই সুসান্ত সিং এর সঙ্গে এত ভালো সম্পর্ক হতো না আমার।

কারণ আমি কখনো সুসান্ত সিং কে সে ভাবে দেখিনি আমাদের দুজনের মধ্যে প্রথম আলাপ হয়েছিল। একটা সিরিয়ালের জন্য অফার আমি করেছিলাম সুসান্ত তখন বলেছিল আমি এবার সিনেমা লাইনে যেতে চাই। আমি এখন আর কোনো ধারাবাহিকে ঢুকতে চাই না। তবে এই কথা শুনে আমি সুসান্ত সিং কে বলেছিলাম তোমার এই কথাটা আমার খুব ভালো লেগেছে তুমি নিজের ক্যারিয়ার তৈরি কর। এর পর থেকেই সুসান্ত সিং আমার খুব ভালো বন্ধু হয়ে যায় এইরকম ভাবে আমাদের বন্ধুত্বটা শুরু হয়। তার বাড়ি জানেনা বলেই আমি তার বন্ধু নয় এমনটা নয়। এখানে আমাকে বাজে খারাপ মনোবৃত্তি তৈরি করে সবাই আমাকে ঘৃণ্য চোখে দেখছে। কিন্তু আমি আদৌ এই চক্রান্তে জড়িত নই। আমিও চাই সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর সঠিক প্রমাণ হোক।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন