মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের সাথে সাথে উচ্চ মাধ্যমিকে তাক লাগানো রেজাল্ট দিতিপ্রিয়ার!

0
Ditipriya Roy got 72 percent marks in higher secondary
অতুলনীয় রেজাল্ট দিতিপ্রিয়ার

হাজার সংবাদ ডেস্ক: শুক্রবার দিন বেড়িয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল। ফল প্রকাশের পর বহু ছাত্র-ছাত্রীর মনে যথেষ্ট আনন্দ ছিল। তবে এবছর সেভাবে মেধাবী ছাত্র-ছাত্রির নাম নির্বাচন করা হয়নি। কিন্তু ছাত্র ছাত্রী অনেক বেশি আনন্দিত এবং উৎফুল্লিত হয়েছে। এরকম পরিস্থিতি তে রেজাল্ট হাতে পেয়েছে। শুধুমাত্র কয়েকজন ছাত্র ছাত্রীর নাম সামনে এসেছে যারা ৪৯৯ বা খুব উচ্চ নাম্বার পেয়েছে। এরকম ভাবে আরও এজন নাম কেড়েছে ভালো রেজাল্ট ও অভনয় দিয়ে।

তারকাদের মধ্যে তাক লাগিয়ে দেওয়া রেজাল্ট করেছে দিতিপ্রিয়া। মা চরিত্রে অভিনয় করতে করতে পেরিয়ে এসেছে জীবনের অনেক সময়। কিন্তু রিয়েল লাইফে তার বয়স মাত্র ১৮ বছর। পরীক্ষা দিলে উচ্চ মাধ্যমিক। পরীক্ষার সময় বহু সংবাদ মাধ্যমে শুনেছিলাম একহাতে স্ক্রিপ্ট এবং আর একহাতে বই নিয়ে পড়াশোনা করছে এই অভিনেত্রী। তার ফলাফল হাতেনাতে মিলে গেল। যথেষ্ট মেধাবী ছাত্রী ছিলেন তিনি এবং সেভাবেই রেজাল্ট এসেছে। উচ্চমাধ্যমিকে গণ্ডি পার করলো দিতিপ্রিয়া। যেমন পড়াশোনাতে ভালো অভিনয় তার কোন তুলনা হয়না। এক নমোনীয় মনোভাবে অভিনয় যেমন তিনি কোন ত্রুটি রাখেননি সেভাবে নিজের জীবনে এই বড় একটা পরীক্ষাতেও তিনি কোনো ত্রুটি রাখেননি। অভিনয়টাকে শিখণ্ডী করে রাখলেও নিজের জীবনের এত বড় একটা পরীক্ষাতেও তিনি কম যান না। দুদিকে সামঞ্জস্য বজায় রেখে এত ভালো রেজাল্ট যা সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে

এছাড়াও তাঁর বহু গুণ রয়েছে তিনি খুব সুন্দর আঁকতে পারেন এবং যখন উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হয় তখনও তিনি একটা দিন শুটিংয়ে আসেননি এমন দিন নেই। তাকে ছাড়া শুটিং অচল তিনি সবটা জেনেও প্রতিনিয়ত তার দায়িত্ব পালন করেছে। এই অভিনেত্রী ইংরেজি পরীক্ষার পরের দিনই তিনি শ্যুটিং ফ্লোরে এসেছিলেন তার অভিনয়ের জন্য। রানী রাসমণি সিরিয়ালে তিনি মুখ্য চরিত্র অভিনয় করছেন তাই তাকে ছাড়া অভিনয় একেবারেই অচল হয়ে পড়বে। একটা দিনও তিনি বন্ধ দেয়নি নিজে দায়িত্ব পালন করেও এত ভালো একটা রেজাল্ট নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ বিধি মেনেই দুর্গা পুজা হবে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী!

শুক্রবার উচ্চ মাধ্যমিকের রেজাল্ট বেরোনোর নিয়ে শুটিং ফ্লোরে অনেক উদ্বিগ্ন হয়েছিল কখন আসবে রানী রাসমনির রেজাল্ট। রেজাল্ট বেরোনোর সাথে সাথেই দিতিপ্রিয়ার মা ফোন করে শ্যুটিং ফ্লোরে জানায় তার রেজাল্ট, ৮২ শতাংস নাম্বার পেয়েছে দিতিপ্রিয়া। ইংরেজি, সিক্ষাবিদ্যা ও মিউজিকে যথেষ্ট ভালো তিনি। অনেক বেশি নাম্বার পেয়েছে এই তিনটি সাবজেক্টে। তবে তিনি সমাজবিদ্যা নিয়ে পড়তে চান কারন অভিনয় ছাড়াও তিনি সমাজের হয়ে অনেক কাজ করতে চান। এত অল্প বয়সে তাই সমাজ সেবা করেছেন। বহু দরি দুঃস্থ মানুষের সাহায্যও করেছেন তিনি। আম্ফান ঝড়েও পাশে দাঁড়িয়েছে বহু মানুষের। এই অল্প বয়সের অভিনেত্রীর মানবিকতার বিচার করলে অনেক কম হবে। এত ছোট বয়সে এত বড় মনের একজন মানুষ সে যা কল্পনাও করা যায় না। তবে সবকিছু মিলিয়ে তার বাড়িতে আজ আনন্দোৎসব এত ভালো রেজাল্ট এবং তার সাথে এতো ভালো মনের মানুষ বোধহয় কোথাও মেলে না তবে তাঁর মধ্যে দিতিপ্রিয়া তার এক অন্যরূপ প্রমাণ।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন