দু থেকে তিন মাসের মধ্যে ভারতে করোনার হার শিখরে পোঁছাবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা

0
corona
ভারতে করোনার রেকর্ড শীর্ষে বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের

হাজার সাংবাদ ডেস্ক: করোনায় আবার একধাপ এগিয়ে গেল ভারত। ২৪ ঘন্টার রেকর্ড অনুযায়ী স্পেনকে পেছনে ফেলে ভারত এখন পঞ্চম স্থানে। বিভিন্ন দেশের সঙ্গে টেক্কা রেখে ভারতে এগিয়ে চলেছে। চতুর্থ দফায় লকডাউন রাখার পরেও কোনো সুরাহা হল না ভারতের। অন্য দেশগুলির এভারেজ দেখলে বোঝা যায় যে তারা এই পরিস্থিতিতে অনেক নিরাপদ ছিল। কিন্তু ভারত সেই জায়গা থেকে এখন অনেক বিপদে রয়েছে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা। তবে এদিকে আক্রান্তের হার যেমন বাড়ছে ঠিক সেভাবেই সুস্থ হয়ে উঠছে মানুষ। এখনো পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে এক লক্ষ ১৯ হাজার ২৯৩ জন।

দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সের অধিকর্তা রনদিপ উলেরিয়া জানিয়েছেন যে ভারতে সংক্রমণ বৃদ্ধি এভাবে চলতে থাকলে দুই থেকে তিন মাস মধ্যে অর্থাৎ আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বর মাসে ভারত আক্রান্তের শীর্ষে পৌঁছাবে। আগস্টের শেষে এবং সেপ্টেম্বরের শুরুর দিকে ভারতে সংক্রমণের হার অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে তার পরেই হয়তো কমতে পারে সংক্রমণ। যদিও ভারতের খুব দ্রুত সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ছে কিন্তু গোষ্ঠীগত ভাবে ছড়ায়নি, বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে ভয়ের কারণ হটস্পট এলাকা গুলিতে গোষ্ঠী সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। যদি গোষ্ঠী সংক্রমন হতো তাহলে দেশজুড়ে প্রত্যেকটা এলাকায় সমান ভাবে রেকর্ড মিলত কিন্তু ভারতে তা হয়নি। দেশে এখনও সব রাজ্যে সমানভাবে সংক্রমণ ছড়ায়নি। শুধু মাত্র ভারতে বেশ কয়েকটি রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে।

ভারতে ১৫ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা এক লক্ষ থেকে দুই লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। এখনো পর্যন্ত প্রায় আড়াই লাখের বেশি আক্রান্ত ভারতের। প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা একের পর এক রেকর্ড ভেঙ্গে শীর্ষে পৌঁছাচ্ছে ভারত। সেই সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যু তবে আনলক ওয়ানের অর্থাৎ লকডাউন শিথীলতায় যে যে ছাড় পাচ্ছে মানুষ তার থেকে সংক্রমনের হার অনেক বাড়তে পারে বলে তিনি মনে করেছেন। গ্রাফ মানচিত্র অনুযায়ী বিশেষজ্ঞদের মতামত ঠিক একই রকম।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন