৩০শে অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হল প্রথম বর্ষের ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তির সময় সীমা! নির্দেশ কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের

0
Calcutta University has increased the admission time of first year students
প্রথম বর্ষের ছাত্র ছাত্রী

হাজার সংবাদ ডেস্ক: কলেজে প্রথম বর্ষের ছাত্র ছাত্রীদের ভর্তির সময়সীমা বাড়ালো কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। আগস্ট মাসের ১০ তারিখ থেকে শুরু হয়েছিল ভর্তির প্রক্রিয়া। অনলাইন মাধ্যমে ভর্তি প্রক্রিয়া চালু হয়েছিল প্রথম বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের। উচ্চ মাধ্যমিক রেজাল্ট বেরোনোর সাথে সাথেই ভালো নাম্বার পেয়ে পাস করেছে যে সমস্ত ছাত্রছাত্রীরা তারা ভালো কলেজ পাচ্ছিল না এবং এখনও পর্যন্ত সেই সমস্যা রয়েছে বহু ছাত্র ছাত্রীর। তার জন্যই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যে সমস্ত কলেজ গুলো যেন অক্টোবর ৩০ তারিখ পর্যন্ত ভর্তির প্রক্রিয়া চালিয়ে যায়।

তার কারণ ছাত্র-ছাত্রীদের এই অসুবিধার সম্মুখীন হয়ে মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী তাদের পছন্দসই কলেজ পাচ্ছেনা, তাড়াহুড়োতে কোন কোন কলেজে সিট ফাঁকা রয়েছে সেখানে স্টুডেন্ট নেই আবার কোথাও কোথাও বা স্টুডেন্ট গিয়ে ভর্তি হয়েছে সেখানে ভালো ছাত্রছাত্রীরা চান্স পায়নি। আগস্ট মাসের ১০ তারিখ থেকে ভর্তি প্রক্রিয়া চালু হয়েছিল যা সেপ্টেম্বর এর 25 তারিখ পর্যন্ত। সেই ভর্তি প্রক্রিয়া চালু থাকবে বলে জানিয়েছিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কিন্তু যেহেতু অনেক ছাত্রছাত্রী বিভিন্ন সমস্যার মধ্যে পড়েছে তার জন্য বারান হল সময় সীমা। কেউ বা ভালো নম্বর পেয়েও ভালো সাবজেক্ট নিয়ে বিভিন্ন কলেজে ভর্তি হতে পারেনি বা নিজের পছন্দসই এবং স্বপ্নের কলেজে ভর্তি হতে না পারায় তাদের মধ্য থেকে অনেক ছাত্রছাত্রী বিসন্নতায় ভুগছে অনেকে।

তার জন্য আবার নতুন করে এই নয়া নিয়ম। এছাড়াও বিভিন্ন কলেজ এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় হল এমন বেশ কিছু বিষয় রয়েছে সেই বিষয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো ছাত্রছাত্রী ভর্তি হয়নি বা খুব অল্প ছাত্র-ছাত্রী সেখানে ভর্তি হয়েছে তার জন্য সমস্যায় পড়তে হচ্ছে কলেজ কর্তৃপক্ষকে। কলেজে যে সিট রাখা ছিল সেইটা ভর্তি হয়নি যা অন্য বছর অনেক সহজে ভর্তি হয়ে যায়। তা নিয়েও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ আরও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্ডারে থাকা অন্যান্য কলেজগুলোর একই রকম অবস্থা তার জন্য নতুন করে আবার ছাত্র-ছাত্রীদের কলেজ নির্বাচন করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় আন্ডারে যে সমস্ত কলেজগুলি আছে সেগুলোর একই রকম নিয়ম মেনে চলার জন্য চিঠি পাঠানো হয়েছে। এবং এবার ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেদের পছন্দমতো বিভাগে ভর্তি হতে পারবে নিজেদের পছন্দের সাবজেক্ট নিয়ে। এখন আর কোন সমস্যা হবেনা আশা করা যাচ্ছে। তবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম শুধুমাত্র যে ছাত্র-ছাত্রীদের স্বার্থে করেছে তা নয় কারণ বিভিন্ন বিভাগের ছাত্র ছাত্রী ভর্তি না হওয়ায় সিট খালি পরে আছে। কোন কোন বিভাগে একেবারে ছাত্রছাত্রী নেই আবার কোন কোন বিভাগে সিট মিলছে না। এইরকম হওয়ার জন্যই আবার পুনরায় ছাত্রছাত্রীরা ভর্তি চিন্তাভাবনা করতে পারবে। কেউ কেউ আবার রয়েছে ভালো কলেজে ফরম ফিলাপ করে সেখানে সুযোগ পায়নি আবার অনেকে রয়েছে ভালো কলেজে ফরম ফিলাপ করে সেখানে সিট না পাওয়ায় সাধারন কোন সাবজেক্ট নিয়ে ভর্তি হতে হয়েছে। তাই সময়সীমা বাড়ানো হচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য। তাতে সুবিধা হবে ছাত্র-ছাত্রীদের নিজেদের পছন্দের সাবজেক্ট নিয়ে পড়াশোনা করবে। কোন অপছন্দের সাবজেক্ট নিয়ে তেমন কোন বিষয় নিয়ে তাদের পড়তে হবে না যাতে ভবিষ্যতে অনেক সমস্যা হয়। কারণ ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই সময়সীমা বাড়িয়ে 30 শে অক্টোবর পর্যন্ত করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন