আইপিএল থেকে চিনা স্পনসর বয়কটের দাবী নেস ওয়াদিয়ারের!

boycott china sponsor from ipl cricket
চিনা স্পনসর বয়কট আইপিএল থেকে

হাজার সংবাদ ডেস্ক: আস্তে আস্তে বদলাতে হবে আইপিএল স্পনসর এর নিয়ম কানুন। আইপিএল থেকে চিনা স্পনসর বাতিলের জন্য আবেদন করেছেন নেস ওয়াদিয়া। তিনি জানিয়েছেন বেশ কয়েকদিন আগে নয়াদিল্লির ব্যাবসায়ী মহলের সাথে কথা হওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিল যে আইপিএল থেকেও খুব শীগ্রই বাদ দেওয়া হবে সমস্ত চিনা স্পনসরদের। যদিও এখনো তা কার্যকরী নয়।

কিংবা তা নিয়ে এখনো কোনো দাবিও ওঠেনি বিসিসিআই। জুন ২৯ তারিখে একসাথে ৫৯টি চিনা অ্যাপ বন্ধ করায় চীনের তথ্য প্রজুক্তিতে যথেষ্ট নাড়া পড়েছে বলে জানিয়েছে। আর তার সাথে যদি এখন আইপিএল ম্যাচ গুলিতে চীনের স্পনসর থাকে তাহলে ভারতের জন্য ভালো নয়। ইন্ডিয়া প্রিমিয়ার লিগের টাইটেল স্পন্সর টাইটেল স্পন্সর ভিভো কে সরানোর আবেদন করেছেন তিনি। গলওয়ান উপত্যাকা যে সংঘর্ষ হচ্ছে ভারত-চীনের। সেখানে চিনের সাথে সম্পর্ক ছেদ করা উচিত। কোন চিনা প্রোডাক্ট থাকবেনা ভারতে। যদি ভারতকে সুযোগ দেওয়া হয় তাহলে বিকল্পে অনেক কোম্পানি আছে ভিভো জায়গায়। বেশ কিছুদিন আগে চিনা স্পনসর বয়কট নিয়ে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিল খুব তাড়াতাড়ি আইপিএলের গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে হবে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত দেশের করোনা মোকাবিলায় তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। তবে চির বিদায় জানানো উচিত চিনা কে। যখনই হোক না আইপিএল তখনই আইপিএলের সাথে যুক্ত সমস্ত কোম্পানিকে বাতিল করা উচিত। ভিভো থেকে প্রায় ৪৪০ কোটি টাকা পায় বিসিসিআই তাই ডোল গুলি থেকে চিনা কোম্পানি সরান সময় সাপেক্ষ। এখনো পর্যন্ত চুক্তি অনুযায়ী ২০২২ সাল পর্যন্ত চুক্তি ছিল আইপিএলের সাথে ভিভোর।

তিনি জানিয়েছে আমি যদি বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হতাম তাহলে আসন্ন আইপিএলে ভারতীয় স্পন্সর খোঁজার চেষ্টা করতাম। তিনি আরো বলেছেন যদি ভারতীয় কোম্পানির এবারে এগিয়ে আসতে হবে এবং সুযোগ থাকলে ভারতীয় কোম্পানী গুলো খুঁজে বের করা উচিত। ভারতেও ভিভোর মতো অনেক কম্পানি রয়েছে তা সুযোগ দিলে সামনে আসবে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন