কুলেখাড়ার গুনাগুন! শাক পাতা কতটা গুরুত্বপূর্ণ জানেন আমাদের শরীরের জন্য?

0
Benefits of kulekhara in human body
কুলেখাড়ার উপকারিতা

হাজার সংবাদ ডেস্ক: আমরা প্রতিনিয়ত নিজেদের শরীরকে যত্ন রাখার জন্য এবং শরীর যাতে সুস্থ থাকে সেটা ভাবার জন্য বিভিন্ন রকম চেষ্টা নিজেদের শরীরের উপর করে থাকি। কিন্তু এই প্রক্রিয়া গুলো আমাদের শরীরে কতটা প্রতিক্রিয়া ফেলতে পারে তা কখনো ভেবে দেখি না। অনেক সময় যখন আমাদের শরীরে কোন রোগ দেখা দেয় তখনই হয়তো আমরা সেটি নিরাময়ের জন্য ব্যবস্থা করি। কিন্তু প্রত্যেকদিন আমাদের খাওয়া-দাওয়া এবং আমাদের চলাফেরার মধ্যে নিজেদেরকে আরো অনেক বেশি সচেতন করে তোলা উচিত সেক্ষেত্রে। কিন্তু সব ক্ষেত্রে আমরা সেটা করে থাকি না।

আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখতে গেলে যে সমস্ত খাবার খাই তার আগে জানা উচিত সেই সমস্ত খাবার আমাদের শরীরের পক্ষে কতটা গুরুত্বপূর্ণ। যেমন আমরা অনেক সময় বিভিন্ন শাক সবজি খেয়ে থাকি তবে এই কথাটা বলা যায় যে শাকসবজি প্রত্যেকটা মানুষের শরীরের জন্য খুব দরকারি। আমাদের খাদ্যে সবুজ জাতীয় খাবার খুব দরকার রয়েছে। আমাদের শরীরে সবুজ জাতীয় খাবারের অনেক ভালো প্রতিক্রিয়া মেলে, তাই আমাদের শরীরে এই শাক সবজির ভূমিকা অপরিসীম।

তবে যে সমস্ত মানুষের এসিড-গ্যাস পেতের সমস্যা এইরকম বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য সাক অমূল্য রত্ন বলা যায়। সেই সমস্ত রোগীদের জন্য সমস্ত দিন খাবার পাশে একটু শাকের যে কোন পদ রাখা উচিত। সেটা শাক ভাজা বা সিদ্ধ যায় কিছু হক না কেন। কিন্তু বন্ধুরা সবাই তো শাখ খাই কোন শাকের কি গুন রয়েছে তা আমরা বিচার করি না। আমরা আজকের আলোচনা করব কুলেখাড়া নিয়ে অর্থাৎ কুল্প শাক যেটাকে গ্রামাঞ্চলের ভাষায় এই নামে চেনা যায়। এই কুলেখাড়ার রয়েছে ভিটামিন-এ, উৎসেচক, আইরন এবং স্টেরন। এই কয়েকটি উপাদান আমাদের শরীরে অনেক বড় বড় অসুস্থতাকেও নির্মূল করতে পারে। কুলেখাড়ার সাধারণত রক্তাল্পতা থাকলে খেতে বলা হয়। কিন্তু রক্তাল্পতা ছাড়াও আরো অনেক কাজে লাগে যদি শরীরে আয়রনের পরিমাণ কম থাকে তখন আপনি কুলেখাড়া খেতে পারেন।

কুলেখাড়া দৃষ্টিশক্তির জন্য ভালো একটি উপাদান। এছাড়াও ধরুন আপনার কোথাও কেটে গেছে এবং রক্ত বন্ধ হচ্ছে না সে সেক্ষেত্রে কোন কুল্প শাক একটা জায়গায় একটু বেটে নিন আর একটা কাপড়ের মধ্যে নিয়ে কাটা স্থানে বেঁধে রাখুন দেখবেন সাথে সাথে রক্ত বন্ধ হয়ে গেছে। এছাড়াও নারাঙ্গা হলে তাতে হলুদ এবং তার সাথে কুল্প শাকের রস সেই জায়গায় লাগান দেখবেন খুব তাড়াতাড়ি উপশম পাবেন। এছাড়াও পেটের সমস্যার জন্য কুলেখাড়ার ভীষণ ভুমিকা রয়েছে। এই সমস্ত সমস্যার জন্য খুব ভালো উপকারিতা রয়েছে। তাছাড়া এখন প্রায়ই শোনা যায় যে অনেকের রয়েছে ইউরিক অ্যাসিড অর্থাৎ একটু বয়স হলে একটু মোটা হয়ে গেলে বা আরো কিছু সমস্যা থাকলে কিছু কিছু মানুষের ইউরিক এসিডের সমস্যা অনেক বেশি আবার কম। কিন্তু ইউরিক অ্যাসিড এখন খুব সাধারন একটি কথা সবাইকে ইউরিক অ্যাসিড থাকে। এই রকমই শোনা যায় বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। যে সমস্ত মানুষের ইউরিক অ্যাসিড আছে তারা কুলেখাড়া খেতে পারো তাহলে ইউরিক এসিডের লেভেল অনেকটাই কমে যাবে। ইউরিক অ্যাসিড শুধুমাত্র শরীরের বেশ কিছু ক্ষয় ক্ষতি করে তার জন্য যা যা ক্ষয়ক্ষতি হয় তার জন্য তো অনেক নিয়ম-কানুন মানতেই হয় কিন্তু তার সাথে আপনি খাওয়া-দাওয়া বিচার করে যদি এই কুলেখাড়া খেতে পারেন তাহলে আপনার ইউরিক অ্যাসিড অনেকটাই কমে যাবে। তাই আমরা এই রকম ছোট পাতা শাক সবজি এগুলোকে খুব এড়িয়ে চলি।

রাস্তাঘাটে পাশে পড়ে থাকে এই শাকসবজি কখনো বিচার করে দেখিনা এই শাকসবজির কত গুণ থাকতে পারে। কত বড় বড় সমস্যার সমাধান করতে পারে এই শাকপাতা। এই শাক পাতার মধ্যে অনেক গুণ রয়েছে। কুলেখাড়া এরকম গ্রামাঞ্চলের দিকে মাঠে-ঘাটে পাওয়া যায় এছাড়াও বিক্রি হয় বেশ কিছু দোকানের সেখান থেকে কিনে আপনারা খেতে পারেন তার জন্য অনেক সমস্যার সমাধান হবে। কুলেখাড়ার মধ্যে রয়েছে এত গুন তাই আজ থেকে কুলেখাড়া খাওয়া অভ্যাস করুন এবং আপনার বাচ্চাকে অবশ্যই কুলেখাড়া এবং কুলেরণ খাওয়াবেন। তাহলেই দেখবেন আপনার বাচ্চার বাড়ার সাথে সাথে অনেক রকম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন