গ্রিন টি উজ্জ্বল করবে আপনার গায়ের রং সাথে আপনার বডি ফিটনেস!

0
benefits of green tea in human life
গ্রিন টি

হাজার সংবাদ ডেস্ক: আমরা সবাই প্রত্যহ সকালে চা পান করে থাকি। বেশিরভাগ মানুষ চা খেয়ে থাকেন। চা পান কিছু মানুষের নেশা বলতে পারেন। অনেক ব্যস্ততার মধ্যে থাকলে নিজের মাইন্ড সেটআপ করার জন্য অনেকে চা খেয়ে একটু হালকা বোধ করেন কিংবা বাইরে থেকে খুব ক্লান্তি নিয়ে বাড়িতে ফিরলে এক কাপ চা খুব দরকার। কিছু কিছু মানুষের লাইফ স্টাইলে সাথে জড়িয়ে রয়েছে এই উপাদানটি। আমরা সবাই চা খেয়ে থাকি এবার কোন ছায়ের কি গুন রয়েছে আমরা কেউ বিচার করি না। শুধুমাত্র শরীরের সঙ্গে সামঞ্জস্য বজায় রেখে যা শরীরে সয় তেমনটাই খেতে পছন্দ করে বেশি মানুষ। কিন্তু সাধারণ নিয়ম অনুযায়ী দুধ চা থেকে যথেষ্ট রয়েছে লিকার চায়ে। দুধ চায়ে অ্যাসিডের প্রবনতা পারে তার সাথে অনেক ক্ষতিকারক দিক রয়েছে। তার জন্য লিকার চা খাওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ তবে বেশীরভাগ মানুষ পছন্দ করেন লিকার চা।

বিভিন্ন রকম চা এর প্রকারভেদ আছে। তার মধ্যে সবথেকে দামি হলো যেটি সেটি হচ্ছে গ্রিন টি। আমরা অনেকেই খেয়ে থাকি বিশেষত মেয়েদের জন্য গ্রিন টি খুব উপকারী এবং শরীরে ক্লান্তি কমাতে কিংবা আপনার খুব মাথা ধরেছে এছাড়াও বেশ কয়েকটি গুণ রয়েছে এই গ্রিন টীর। সারাদিনে সকাল-বিকেল বেলা যদি আমরা এক কাপ করে গ্রিন টি খেতে পারি তাহলে শরীরের অন্য রকম প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে। যদিও এটি একটি ব্যয়বহুল উপাদান যা সাধারণের দামের দ্বিগুণ তাই সাধারণত মানুষ এই চা খেতে চায় না। তবে এই চা’র মধ্যে রয়েছে বহু গুনাগুন। যদিও চা ও একটু আলাদা কারণ নরমাল চা একটু বেশি লিকারে তিতকুটে হয় কিন্তু এই গ্রিন টি এমনিতেই একটু তিতকুটে ভাব থাকে যার জন্য একটু খেতে অস্বস্তি হয় কিন্তু এর গুন অপরিসীম।

যারা ওজন কমাতে চাই বা শরীরের মধ্যে ফ্যাট বেড়ে যায় তাদের ডায়েট চার্ট এর মধ্যে সাধারণ লিকার চা এর থেকে গ্রিন টি অনেক ভাল। বিশেষত মেয়েদের জন্য গ্রিন টি খাওয়া খুব গুনাগুন রয়েছে কারণ মেয়েদের এখন সাধারণত আমরা শুনে থাকি ব্রেস্ট ক্যান্সার কিংবা জরায়ু ক্যান্সার হয়ে থাকে তার জন্য যথেষ্ট উপকারী গ্রিন টি। যদি আপনি খেয়ে থাকেন তাহলে আপনি এই রোগ থেকে অনেক দূরে থাকবেন। এছাড়াও গ্রিন টি খেলে শরীরের মধ্যে অন্যরকম শক্তি বা প্রতিক্রিয়া অনুভূতি পাওয়া যায়। তার সাথে গ্রিন টি যদি আপনি খেতে পারেন মেটাবলিজম বাড়ায় এবং আপনার মেটাবলিজম বাড়ানোর সাথে সাথে স্ক্রীন উজ্জ্বল করে। যখন আপনি ভীষণ ক্লান্তিতে আছেন তখন আপনি গ্রিন টি খেলে আপনার ক্লান্তি অনেকটাই কমে যাবে। তবে সাধারণত খুব মিষ্টি দিয়ে খাবেন না। যত চিনি কম খাবেন ততোই ভালো সাধারণত চিনি ছাড়া খাওয়াই ভালো। আর যা একটু হেলদি তাদের জন্য মিষ্টি ছাড়া চা খাওয়া উচিত।

তবে গ্রিন টি খাওয়া মানে এটা নয় যে আপনি খুব বেশি পরিমাণে খাবেন। তাহলে আপনার শরীরের আরো বেশ কিছু প্রতিক্রিয়া দেখা দেবে গ্রিন টি যেমন শরীরের জন্য ভালো তেমন বেশি খেলে শরীরের মধ্যে ক্ষতি হতে পারে। তাই মেপে খান এবং প্রত্যেকদিন অন্ততপক্ষে দুবার খান। সাধারণ দেখবেন আপনার শরীর আগের থেকে অনেক ভালো লাগছে এবং তার সাথে আপনার শরীরের বেশ কিছু সমস্যাও দূর হবে। শুধুমাত্র চা খেলে শরীর ঠিক হবে তাও নয় তার সাথে পুষ্টিকর খাদ্য এবং তার সাথে রয়েছে যোগ অভ্যাস এর মধ্য দিয়ে আপনার শরীর একেবারে সচল থাকবে। তবে সাধারণ এবং এর পার্থক্যটা আপনাদেরকে জানালাম আশা করি আপনি দুটো চা এর পার্থক্য বুঝতে পারবেন। কারণ লিকার চায়ের মধ্যে যে ক্ষতিকর পদার্থ রয়েছে তা আপনার লিভারকে অনেক দুর্বল করে দেয় তার থেকে অনেক ভালো গ্রিন টি। কারণ সেটি যেমন আপনার ক্লান্তি দূর করবে সাথে সাথে আপনার শারীরিক উজ্জ্বলতা বজায় রাখবে তার গুণাগুণ আমাদের জীবনে অপরিসীম তবে এটি ব্য্যবহুল একটি উপাদান।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন