সুশান্তের মায়ের ছবি হাতে নিয়ে আরও এক পোস্ট আঙ্কিতার

0
Ankita posted a picture of Sushant's mother with her hand
সুশান্ত সিং রাজপুর

হাজার সংবাদ ডেস্ক: প্রেমের বন্ধন ছিড়ে গেলেও তাদের প্রেম মনে মনে বন্ধন অটুট রয়ে গেছে সেই প্রেমের কাহিনীর। হয়তো আলাদা থেকেছে দুজনে কিন্তু দুজনের মধ্যে সেই সম্পর্কের অন্ত নেই। কেউ কাউকে ছাড়া এক মুহূর্ত ভাবতে পারেনা। ছাড়াছাড়ি হলেও তাদের মধ্যে মনের আকর্ষণ ছিল দুজনের। সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর প্রায় 40 দিন পর তিনি একটি পোস্ট করেছিলেন এবং তিনি সেখানে জানিয়েছিলেন যে সুশান্ত এখন দেবতার সন্তান। ভগবানের সন্তান যিনি সেই রূপে তিনি একটা প্রদীপ এবং মোমবাতি জ্বালিয়ে তাকে সম্বর্ধনা জানিয়েছিলেন।

হ্যাঁ, তিনিই হলেন অঙ্কিতা লোখান্ডে যিনি এতদিন পরেও ভুলতে পারেনি সেই প্রাক্তন প্রেমিকের কথা। প্রতিমুহূর্তে তাকে মনে করে কেঁদেছেন এবং তার কথা মনে উঠলে এখনো বিষন্ন হয়ে ওঠেন। সারাদিনে এখন তার ভাবনার একমাত্র বিষয় সুশান্ত সিং। কিভাবে মৃত্যু হয়েছে প্রথম থেকেই কেউ সেভাবে জোরকদমে তদন্ত চালায় নি তবে এবার সুশান্তের বাবা এবং তার পরিবার সেই মৃত্যু রহস্য ফাঁস করার জন্য এগিয়ে এসেছে। বারবার ছেলের মৃত্যুর ন্যায় বিচার চাইছে তার সাথে অঙ্কিতা লোখান্ডে জানিয়েছে যে যেভাবেই সে আত্মহত্যা করে থাকুক না কেন সত্যিটা সবাই এর সামনে আসা দরকার আমরা চাই সেই সত্যি সামনে আসুক।

এরপর তিনি নিজে জানিয়েছেন বিহার পুলিশকে বিভিন্ন তথ্য। সুশান্তের যে কথাটা এতদিন চাপা ছিল সেই কথাটা প্রথম সামনে নিয়েছিলেন অঙ্কিতা লোখান্ডে। তিনি বলেন অনেকদিন আমরা একসাথে থেকেছি। সে সময় সুশান্তের অভ্যাস ছিল প্রত্যেক দিনই ডাইরি লিখত। এটা সুশান্ত এর হবি তবে তারপর বিহার পুলিশের তদন্তে সেই ডাইরি হাতে পাওয়া গিয়েছিল কিন্তু সেখান থেকে বেশ কিছু পেহ ছিড়ে নেওয়া হয়েছিল, কিভাবে সেই পেজগুলো উধাও হয়ে গেল সুসান্ত সিং এর মৃত্যুর পর। তা জানিয়ে বহুভাবে প্রশ্ন উঠেছে ডায়েরী রয়েছে কিন্তু সেখানে বেশ কিছু পাতা নেই কেন। অঙ্কিতা লোখান্ডে এছাড়াও জানিয়েছিল তার সাথে মেসেজে বেশ কিছু কথোপকথন হয়েছিল তাদের সম্পর্ক শেষ হবার পর। বিহার পুলিশ কে জানিয়েছিল বটে সঙ্গে সম্পর্ক না থাকলেও সুশান্তের দিদিদে সাথে তার প্রায় কথা হত।

এর মধ্যেই অঙ্কিতা লোখান্ডে নিজের হঠাৎ করেই সুশান্ত সিং এর মায়ের ছবি হাতে নিয়ে একটি পোস্ট করেছেন এবং সেখানে সেই পোস্টে তিনি জানিয়েছেন যে এখন তোমরা একসাথে আছো। এই কথার মাধ্যমে অঙ্কিতা লোখান্ডে অনেক কিছুই প্রকাশ করেছেন সুশান্ত সিং এর মা ছিল সুসান্তের জীবনসঙ্গী। সুশান্ত সিং এর মা যখন মারা যায় তখন একেবারে বিষণ্ন হয়ে পড়েছিল সুশান্ত সেই সময় অঙ্কিতা লোখান্ডে অবসাদ থেকে তাকে বের করেছিল। তাই তার কাছে সুসান্তের মাও একটা জ্বলন্ত উদাহরণ। তাই তিনি এই পোস্ট করে লিখেছেন এবং সুশান্ত সিং মারা যাবার পরেও তিনি লিখেছিলেন মায়ের কাছে আছে এবার হয়তো তুমি ভালো থাকবে। সুশান্ত প্রথম যখন অভিনয় জগতে এসেছিল তখন সব থেকে বড় আঘাত ছিল তার মায়ের হারিয়ে যাওয়া। ঠিক সেইসময় অঙ্কিতা লোখান্ডে তাকে সামলে নিয়েছিল এবং আজ সেই পোষ্টের মাধ্যমে তিনি বুঝিয়েছেন যে তারা একসাথে অনেক ভালো আছে সেখানেই ভালো থাকুক সে।

এর মধ্যেই সিশান্তের দিদি আরো এক পোস্ট করে জানিয়েছে দেশজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় ভাইয়ের মৃত্যুর বিচার চাইছে সেইরকম একটা ভিডিও পোস্ট করেছেন এবং তিনি জানিয়েছেন যে আর যাই হোক না কেন ভাইয়ের মৃত্যুর সঠিক বিচার পাক। আমরা সবাই চাই তার মৃত্যুর সমস্ত বিচার তার জন্য সময় লাগছে অনেক সময় যে সময় লাগার দরকার নয় আমাদের অনেক ঝামেলার মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে ঠিক কথা। কিন্তু সবকিছু ঝামেলা অপেক্ষা করেও আমরা ভাইয়ের মৃত্যু রহস্য খুঁজে বের করতে চাই। সেই জায়গায় আমরা সবাই আসতে চাই এবং যদি সেই মৃত্যুর পেছনে অপরাধীর নাম আসে তাহলে সেই অপরাধী যথেষ্ট শাস্তি চাই এটুকুর জন্য আমরা সমস্ত কষ্ট করতে রাজি ভাইয়ের জন্য।

দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অনুরাগী সুশান্ত অনুরাগী তথা তাঁর পরিবার একেবারে বিপর্যস্ত অবস্থায় পড়েছে সুশান্তকে হারিয়ে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েও বাবা। এখনো পর্যন্ত ন্যায় বিচার চাইছে নিজের ছেলের মৃত্যুর জন্য সাথে দিদি জামাইবাবু এবং তার অনুরাগীরা। প্রথম থেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন মাধ্যমে বিচার চেয়ে গেছে কখনো সিবিআই তদন্ত কখনোবা জানিয়েছে সঠিক বিচারের তবে এবার বোধহয় সঠিক বিচার পাবে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন