২রা অক্টোবর থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে আলিপুর চিরিয়াখানা!

0
alipur zoo open at 2nd october
আলিপুর চিরিয়াখানা

হাজার সংবাদ ডেস্ক: ছ মাস হয়ে গেছে মনোরঞ্জনের জন্য বিভিন্ন জায়গায় এখনও বন্ধ। আবার কেউ কেউ বা খুলেছে আবার বন্ধ করে দিয়েছে কোভিড প্যানডেমিক এর জন্য। কোন ভাবে সংক্রমণ আটকানো যাচ্ছে না তার জন্য বন্ধ করে দিয়ে দেওয়া হয়েছিল সমস্ত মন্দির-মসজিদ বিভিন্ন মনোরঞ্জনের জায়গাগুলি। তার সঙ্গে ছিল চিড়িয়াখানাগুলো। তবে এবার ২রা অক্টোবর থেকে খুলে দেয়া হচ্ছে রাজ্যের বারোটি চিড়িয়াখানা।

তার মধ্যে রয়েছে আলিপুর জু, অক্টোবর থেকে আলিপুর জু খুলে দেওয়া হবে। সেখানে সমস্ত রকম কোভিড প্রটোকল মানা হবে এবং তার সাথে যা কিছু মানার সব চলবে যেমন তার মধ্যে রয়েছে মাক্স স্যানিটাইজার হ্যান্ড গ্লাভস ইত্যাদি। সমস্ত প্রটোকল এর সাথে থাকবে সোশ্যাল ডিসটেন্স সবকিছু বজায় রেখে খোলা হচ্ছে আলিপুর জু। এবং রাজ্যের যে আরও 11 টি চিড়িয়াখানা রয়েছে সেগুলি ও খুলে দেওয়া হবে তবে তিন চার টি জু খুলে দেওয়া হবে ২৩ শে সেপ্টেম্বর থেকে। সেইরকমই জানিয়েছে বন সম্পদ মন্ত্রী।

এর আগে সমস্ত চিড়িয়াখানা খোলার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল কিন্তু কোভিড প্রটোকল মানা সম্ভব নয় বলে তা খোলা হয়নি। তবে এবারে যেহেতু সবকিছু শিথিল হয়ে তার জন্য সমস্ত খুলে দেওয়া হচ্ছে। সমস্ত নিয়ম মানা হবে তবে এখনো পর্যন্ত নিশ্চিত নয় যে কতটা সংক্রমণ আটকানো সম্ভব তবে খুব শীঘ্রই চিড়িয়াখানা খুলছে এবং কলকাতার অবস্থা আবার স্বাভাবিক হবে বলে মনে হচ্ছে।

বন সম্পদ মন্ত্রীর কথা অনুযায়ী তিনি জানিয়েছে রাজ্য যে বারোটি চিড়িয়াখানা রয়েছে সেগুলি যেমন খোলা হচ্ছে তার সঙ্গে খোলামেলা বোনের সঙ্গে যুক্ত অর্থাৎ যে পশু গুলো খোলা ঘুরে বেড়ায় তাদের জন্য সেই সমস্ত পশুদের জন্য বেশ কয়েকটি প্রটোকল মানা হচ্ছে। শুধুমাত্র তাদের জন্য নয় সেখানে মনোরঞ্জনের জন্য যে দর্শকরা যায় তাদের কেউ মানতে হবে বেশকিছু কভিড প্রটোকল। তারপর ঢুকতে দেওয়া হবে সেখানে অর্থাৎ তার মধ্যে যেমন রয়েছে কুমির প্রকল্প এছাড়াও বেশ কয়েকটি জায়গায়। যদিও শুধুমাত্র হাতির জন্য সেই স্থান গুলো বন্ধ বাকি অন্যান্য পশুদের ক্ষেত্রে খোলা রয়েছে যেখানে বন দপ্তর রয়েছে। সেই অবস্থায় মানুষ দেখতে যাই সেই রকম ভাবে খোলামেলা পরিবেশে এবার থেকে মানুষ যেতে পারবে বলে জানিয়েছে বন সম্পদ মন্ত্রী।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন