লাদাখের পর আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের সেনা কাঠামোর ঘোড় পরিবর্তন আনবে ভারত!

0
andaman and nicobar islands
লাদাখের পর এবার নতুন পরিকল্পনা নিকবর দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে

হাজার সংবাদ ডেস্ক: লাদাখ সীমান্ত উপত্যাকায় চিনের সেনার সঙ্গে ভারতীয় সেনার সংঘর্ষের পর ভারত সরকারের নতুন উদ্যোগ। এবার ভারতের নতুন পরিকল্পনা মহাসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তা নিয়ে। একধাপ এগিয়ে কথা বলছেন ভারত সরকার, তিনি জানিয়েছেন আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের অতিরিক্ত সেনা পাঠানোর কাজ শুরু করা হবে খুব তাড়াতাড়ি। সেই কাজ সম্পন্ন হবে ২০২৭ সালের মধ্যে।


সেখানকার সেনা সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা যায় এতদিন যাবৎ সেখানে পর্যাপ্ত সেনা ও বিভিন্ন পরিকাঠামোর দিক দিয়ে অবহেলার শিকার হয়েছে আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কামান্ডো। কিন্তু ভারত সরকার চিন এবং ভারতের সংঘর্ষের পর এবার মহাসাগরীয় স্থানগুলোতে অনেক বেশি সচেতন করার কথা জানিয়েছেন। এই সংঘর্ষের পর সজাগ হয়েছে ভারত তাই নজর পড়েছে আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের।

আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কাছে কাছাকাছি ভারত মহাসাগরের উপর দিয়ে জ্বালানি তেল আমদানি করে চিন। সেই বিষয়ে নজর রেখেই কমান্ডো গুরুত্ব অনেক বেশি বাড়ানো হচ্ছে আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে। সমস্ত দিকে অনেক সচল ব্যবস্থা নিয়ে সতেজ করে তুলছে নিকবর দ্বিপপুঞ্জ। অনেক বেশি নৌজাহাজ, যুদ্ধবিমান ও সেনা মোতায়েন করা হবে আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের। যাতে কোনো সমস্যা না হয় কঠিন পরিস্থিতিতে। এবার ভারত সরকার চোখ তুলে তাকিয়েছে আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের কম্যান্ড পরিকাঠামোর দিকে। আন্দামান কমান্ডোতে যাতে বড় যুদ্ধবিমানে কোন অসুবিধা না হয় তার জন্য রানওয়ের দৈর্ঘ্য বাড়ানো হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি এর কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছে ভারত সরকার। প্রায় দশ বছরের মধ্যে প্রতিরক্ষার পরিকাঠামো পরিবর্তনের পরিকল্পনা করা হয়েছে। তাতে পুরোপুরি চেঞ্জ হবে আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের সানাবাহিনি। এই কাজের জন্য আগামীকাল ভারত সরকার জানিয়েছে ৫৬৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। বলে জানিয়েছেন আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জআগামী এক বছরের মধ্যে উপযুক্ত যুদ্ধবিমান ঘাঁটি তৈরি করবে।

এই প্রথম কোন সরকার এইরকম একটা পরিস্থিতিতে বর্ডারে গিয়ে সেনাদের সঙ্গে সাক্ষাৎকার করেছেন। অসুবিধা জানতে চেয়েছে সেনাদের, ঠিক সেভাবেই আবারো নজর দিচ্ছে নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ যেখানে সেনাদের অনেক অভিযোগ ছিল। যে তাদেরকে অবহেলা হতে হয়েছে এতো দিন। এবার সেই পরিস্থিতির ঘর পরিবর্তন আসতে চলেছে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন