ভারতীয় সেনাদের নিরাপত্তার জন্য এলো SAI App! যা হোয়াটস অ্যাপ এর মত সুবিধা দেবে!

0
A Indian army make a messaging app for their department
সেনাদের নিরাপত্তার জন্য এলো এই অ্যাপ

হাজার সংবাদ ডেস্ক: সেনাদের জন্য তৈরি হয়েছে নতুন একটি অ্যাপ। যা নিরাপত্তা এবং সক্রিয়তা বজায় রাখবে। শুধুমাত্র হোয়াটসঅ্যাপ এর পরিবর্তে ব্যবহার করতে পারবে তারা এই অ্যাপটি। হোয়াটসঅ্যাপের যে সমস্ত কাজকর্ম করা যেত সেই অ্যাপের মাধ্যমে করা যাবে এই কাজগুলি। “সিকিউরিটি অ্যাপ্লিকেশনস অফ ইন্টার্নেট” সম্পূর্ণ নাম দেয়া হয়েছে এবং এই অ্যাপটিকে শর্ট করে বলা হয় SAI অর্থাৎ এই অ্যাপের মাধ্যমে শুধুমাত্র নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি বজায় থাকবে এমনটা নয় নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি অর্থাৎ সমস্ত তথ্য নেটওয়ার্কের মাধ্যমে যে আদান-প্রদান হবে তা একেবারেই নিরাপত্তা বজায় রাখবে। যা এই অ্যাপের নাম দেখেই বোঝা যাচ্ছে। যে এই অ্যাপটির কার্যক্ষমতা কেমন হতে পারে।

বৃহস্পতিবার এই অ্যাপটি নিরাপত্তা মন্ত্রী নিজে উদ্বোধন করেছেন এবং এই অ্যাপটি তৈরি করেছেন। রাজস্থানের এক কমান্ডোর তিনি অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সেনাদের জন্য তৈরি করেছেন এই অ্যাপ। নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি অ্যাপ্লিকেশন এই অ্যাপটি যথেষ্ট রকম ভাবে সাহায্য করবে সেনাদেরকে। এর আগে তথ্য চুরির দায়ে বিভিন্ন রকম ভাবে অনেকগুলি অ্যাপ বাতিল করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর আত্মনির্ভর যোজনা তে একের পর এক তথ্য প্রযুক্তি পাচার হওয়া নিয়ে বিরোধিতা হয়েছিল এবং কেন্দ্রের তরফ থেকে জানিয়েছিলেন সেনাদের তথ্য নিরাপত্তা বজায় রাখা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ আর তার জন্যই বিভিন্ন তথ্য পাচার অপরাধের জন্য নিষিদ্ধ ছিল অনেক অ্যাপ আর ঠিক তাঁর জন্যই তাদের জন্য আলাদা করে হোয়াটসঅ্যাপের মতো আরেকটি অ্যাপ তৈরি করেছে সেনা কর্মীদের জন্য। যারা তাদের ফোনে কথাবার্তা বলা এবং অন্যান্য ভিডিও কল এছাড়াও সাউন্ড রেকর্ডিং সমস্ত কিছু আদান-প্রদানের জন্য ব্যবহার করতে পারবে এই অ্যাপটি দ্বারা।

প্রথম থেকে এখনো পর্যন্ত চীনের অনেকগুলি বাতিল করা হয়েছে শুধু দেশের নিরাপত্তা রাখার জন্য এবং তার সাথে বাতিল করা হয়েছে অন্যান্য অ্যাপ এবং নিরাপত্তা নষ্ট করছে এইরকম যেকোনো বিষয়। আর ঠিক সেভাবেই নিরাপত্তা রক্ষার জন্য সেনাদের অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ এই অ্যাপটি খুব দরকার ছিল। আর এখন সেনাদের জন্য সবাইকেই এই অ্যাপ ব্যবহার করতে বলা হয়েছে তবে এটি জনসাধারণের জন্য নয় জনসাধারণ যেভাবে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করছে সেরকম হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করবে কিন্তু এই সাইটটি ব্যবহার হবে শুধুমাত্র সেনাদের জন্য। তারা তাদের নিরাপত্তা বজায় রাখবে এবং এর মাধ্যমে ইন্টারনেট পরিষেবা থেকে তথ্য আদান-প্রদান হওয়ার সময় কোনভাবেই তথ্য অন্য কোথাও পাচার হবে না বা নিরাপত্তা সঠিকভাবে বজায় রাখতে পারবে এই অ্যাপটি। তার জন্য এর আগে বিভিন্ন রকম বহু পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হয়েছে এবং ISO থেকেও এই অ্যাপ এর পরীক্ষামূলক ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। তারপরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এই অ্যাপটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ সেনাদের জন্য।

দেশের মধ্যেই শান্তি বজায় রাখতে গেলে সবার আগে বজায় করতে হবে সেনাদের নিরাপত্তার কারণ তারা সারাদেশে নিরাপত্তা দেয় তাই সেনাদের নিরাপত্তা দিকে তাকানোর দায়িত্ব দেশের মানুষের। সেইজন্যই এই অ্যাপ তৈরি হয়েছে কেন্দ্র সরকারের অনুমতি নিয়ে আসেই অ্যাপ এর উদ্বোধন করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রক।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন