ভারত বায়টেক সুখবর এনেছে! কোভ্যাক্সিন কাজ করছে বানরের শরীরে

0
12 monkeys are responding well that have been applied to covaccin
কোভ্যাকসিন

হাজার সংবাদ ডেস্ক: করোনা এখন ঊর্ধ্বমুখী কোনভাবেই সামাল দেওয়া যাচ্ছে না। প্রত্যেকদিন প্রায় এক লাখ এর কাছা কাছি করে সংক্রমণ বাড়ছে। তাই এই ঊর্ধ্বমুখী করোণা সংক্রমণে ভ্যাকসিনের ভীষণ প্রয়োজন। সেই ভ্যাকসিন কিভাবে পাবে মানুষ? তবে এর মধ্যে ভারত বায়োটেক থেকে খুব ভালো সুখবর মিলেছে। কোথাও হলেও আলোর দিশা পেয়েছে মানুষ, প্রত্যেকটা মানুষ চিন্তায় ছিল কবে পাবে করোনার ভ্যাকসিন কিন্তু এবার ভারত বায়োটেক জানিয়েছে করেছে অ্যানিমেল বডিতে বাল রেসপন্স পাওয়া গেছে। অর্থাৎ স্তন্যপায়ী প্রাণীদের শরীরেও ভ্যাকসিন কাজে লেগেছে।

যদিও হিউম্যান বডি এখনো পর্যন্ত তা পুস করা হয়নি তবে বানরের শরীরে তা কাজে লেগেছে। বারোটি বানরের শরীরে এই মেডিসিন দেওয়া হয়েছিল। এই কদিন একই রকম ভাবে কাজ করেছে এবং সবদিকের সফলভাবে রেসপন্স পাওয়া গেছে এই কভ্যাক্সিনের। এই ভ্যাকসিনের তাই কোথাও হলেও নিশ্চিন্ত কারণ এই বানরের পজেটিভ রিপোর্ট কথাও বলে দিচ্ছে যে মানুষের শরীরে ও কাজ করতে পারে। তার কারণ জেনেটিক ভাবে যুক্ত কোথাও হিউম্যান বডি সঙ্গে এই বানরের অনেক মিল রয়েছে।

কারণ আমরা বহু পুরনো দিনের কথা ভাবলে জানা যাবে আদিম মানুষ, সেই প্রসঙ্গ সেখান থেকেই আস্তে আস্তে মানুষের উৎপত্তি। তাই কোন রকম ভাবে স্তন্যপায়ী প্রাণীর ওপর কাজ করায় ভারত বায়োটেক আশার আলো দেখেছে। ভ্যাকসিন যে কাজ করছে তার ওপর তারা নিশ্চিত এবং সবদিকেই সফল হয়েছে। বেশ কয়েকটি বানরের সেই অসুধ পুস করা হয়নি এবং যে কয়েকটি বানরের পুশ করা হয়েছিল তাদের মধ্যে সমানভাবে তফাৎ বোঝা গেছে। তারা রেস্পন্স করেছে ভালো এবং অন্যান্য যাদের পুশ করা হয়নি তাদের মধ্যে কটা বানর মারাও গেছে। তাই বানরের শরীরে কোন কাজ করায় ভারত বায়োটেক থেকে অনেকটা বড় পদক্ষেপ এগিয়েছে বলে মনে করছে। আরো বেশ কিছু মেডিকেল বোর্ড এবং আইসিএমআর এর মত নিয়ে দেখা গিয়েছে যে এইবার হয়তো খুব কার্যকরী হয়ে উঠবে কারণ যা কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে। সব পরীক্ষাতেই সফল হয়েছে এখনো পর্যন্ত যদিও তা হিউম্যান বডি তে এখনো করা হয়নি। কিন্তু না হলেও এনিমেল বডিতে প্রয়োগ করেছে। তাই কিছুতা হলেও এখন মানুষের শরীরে ওই মেডিসিন কার্যকরী হবে বলে মনে করছে। যদিও এখনও অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষা বাকি কিন্তু কার্যকরীতার মধ্যে রয়েছে হয়তো পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলবে কিন্তু খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে কোভ্যাকসিন। তার ইঙ্গিত আরো একধাপ এগিয়ে গেছে সক্ষমতার দিকে।

একটি মন্তব্য করুন...

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন